• ঢাকা
  • বুধবার, ১৭ আগস্ট, ২০২২, ২ ভাদ্র ১৪২৯
প্রকাশিত: আগস্ট ৪, ২০২২, ১০:০৯ এএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ৪, ২০২২, ০৪:০৯ এএম

কাজের ছেলেকে বিয়ে করলেন ক্যাটরিনা!

কাজের ছেলেকে বিয়ে করলেন ক্যাটরিনা!

বাস্তবে সালমান খান আর ক্যাটরিনা কাইফের প্রেম বিয়ে পর্যন্ত গড়ায়নি। কিন্তু পাকিস্তানের এক মালিক আর চাকর প্রেম থেকে বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। এখন তারা একজন সালমান খান আরেকজন ক্যাটরিনা কাইফ।

প্রেম চিরদিনের। প্রেম মানে না দেশ-কাল। প্রেমে উঁচু-নিচু, ক্ষমতাবান আর ক্ষমতাহীনের হিসেব নেই তারই প্রমাণ মিললো-এই গল্পে। পাকিস্তানের পরিচিত ইউটিউবার ও কন্টেন্ট ক্রিয়েটর সৈয়দ বাসিত। এই বাসিতের ডাকেই তার চ্যানেলে হাজির হয়েছিলেন নববধূ নাজিয়া। তিনি জানান তার ও স্বামী সুফিয়ানের ব্যতিক্রমী প্রেম কাহিনীর কথা। ইসলামাবাদ শহরে নাজিয়ার বাড়ি। বাড়িতেই একাই থাকতেন। সাহায্যের জন্য কাজের লোক প্রয়োজন ছিল। বন্ধুকে বলেন সেকথা। বন্ধুর পরামর্শেই নাজিয়ার বাড়িতে প্রথমবার আসেন সুফিয়ান। শেষ পর্যন্ত মাসিক ১৮ হাজার টাকা বেতনে গৃহকর্মে সুফিয়ানকে নিয়োগ দেন নাজিয়া।
 
নাজিয়ার বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমে জানানো হয়েছে,‘সুফিয়ানের সরলতা, কর্তব্যবোধে প্রথম থেকেই মুগ্ধ করার মতো ছিল। অল্প কিছুদিনের মধ্যে কাজেকর্মেও গৃহকর্ত্রীর মন জিতে নেন সুফিয়ান। ধীরে ধীরে বাড়ির একজন হয়ে ওঠেন। গৃহকর্ত্রী অসুস্থ হলে তাকে ওষুধ খাইয়ে সেবা-শুশ্রূষা করে সারিয়ে তোলা থেকে শুরু করে ঘরের জন্য খাবার বানানো– সবকিছুই দায়িত্ব নিয়ে ও সুন্দরভাবে পালন করতেন সুফিয়ান। সব মিলিয়ে মন জিতে নেন নাজিয়ার। এছাড়াও সুফিয়ানের ভদ্র স্বভাব, রুচিশীল হাব-ভাবে মুগ্ধ হন তিনি। সোজা কথায় সুফিয়ানের প্রেমে পড়ে যান গৃহকর্ত্রী নাজিয়া। একদিন মনের কথা জানিয়েও দেন। নাজিয়ার প্রস্তাব শুনে বিশ্বাস করতে পারেননি সুফিয়ান। তিনি অজ্ঞান হয়ে যান। তবে জ্ঞান হারানোর আগে বলেন, আই লাভ ইউ টু। 

সুফিয়ান-নাজিয়া বিয়ে করেন। সৈয়দ বাসিতের ইউটিউব চ্যানেলে এসে লাজুক মুখে নাজিয়া জানিয়েছেন, সুফিয়ানকে তিনি সালমান খান বলে ডাকেন। আর সুফিয়ান তাকে ক্যাটরিনা কাইফ বলে ডাকে। সমাজে সমালোচনার ঝড় বইছে কিন্তু তারা সে কথা কানে তুলছেন না। এই জুটি আপাতত প্রেমে ‘মশগুল’।