• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯
প্রকাশিত: নভেম্বর ৩০, ২০২২, ১২:৪৪ এএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ২৯, ২০২২, ০৬:৪৪ পিএম

সব ভিক্ষু ড্রাগ টেস্টে ফেল করায় শূন্য থাই বৌদ্ধমন্দির

সব ভিক্ষু ড্রাগ টেস্টে ফেল করায় শূন্য থাই বৌদ্ধমন্দির
ছবি ● সংগৃহীত

সব ভিক্ষু ড্রাগ টেস্টে ফেল করায় থাইল্যান্ডের একটি বৌদ্ধমন্দির শূন্য হয়ে পড়েছে। তাদের পুনর্বাসনের জন্য একটি ক্লিনিকে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। 

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশটির উত্তরাঞ্চলের ফেচাবুন প্রদেশের একটি বৌদ্ধমন্দিরের মঠাধ্যক্ষ সহ চারজন ভিক্ষুর শরীরে মেথঅ্যাম্ফেটামিনের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। 

সোমবার (২৮ নভেম্বর) ওই মন্দিরে ইউরিন টেস্টের ব্যবস্থা করে পুলিশ। মন্দিরের চারজন ভিক্ষুর সবাই এতে ফেল করলে তাদেরকে সেখান থেকে অন্যত্র নিয়ে যাওয়া হয়। 

তবে, ঠিক কী কারণে এই মন্দিরটি পুলিশের নজরে আসে তা জানায়নি তারা। 

স্থানীয় কর্মকর্তা বুনলার্ট থিনতাপাই জানান, মন্দিরটিতে বর্তমানে কোনও ভিক্ষু নেই। ফলে পুণ্য অর্জন করা নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছেন আশেপাশের গ্রামের বাসিন্দারা। 

বৌদ্ধ ধর্মবিশ্বাস অনুযায়ী, ভালো কাজ করার মাধ্যমে পুণ্য অর্জন করেন বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা, যা তাদেরকে নিরাপত্তা দেয়। ভিক্ষুদের খাবার দেয়া এই পুণ্য অর্জনের একটি উপায়। 

থিনতাপাই জানান, এ ব্যাপারে স্থানীয় মঠ প্রধানের সহায়তা চাওয়া হয়েছে। পুণ্যার্থীদের উদ্বেগ দূর করতে মন্দিরটিতে কিছু নতুন ভিক্ষু নিয়োগ করার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। 

মাদক পাচার রোধে থাইল্যান্ডে সাম্প্রতিক কর্মসূচির মধ্যে এই ঘটনা ঘটল। সম্প্রতি দেশটিতে মেথঅ্যাম্ফেটামিন একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে। গত বছর সেখানে সর্বাধিক পরিমাণ মেথঅ্যাম্ফেটামিন জব্দ করা হয়। 

মাদকটি পাচারের জন্য থাইল্যান্ড একটি বড় ট্রানজিট পয়েন্ট। বিশ্বের সবচেয়ে বড় মেথঅ্যাম্ফেটামিন উৎপাদক মিয়ানমার থেকে লাওস হয়ে মাদকটি থাইল্যান্ডে প্রবেশ করে। 

জাগরণ/আন্তর্জাতিক/এসএসকে