• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
প্রকাশিত: অক্টোবর ১৯, ২০২৩, ১১:৫১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ১৯, ২০২৩, ১১:৫১ পিএম

চার মাপকাঠিতে প্রার্থী দেবে আওয়ামী লীগ

চার মাপকাঠিতে প্রার্থী দেবে আওয়ামী লীগ

আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে অন্তত চারটি মাপকাঠি দেখে প্রার্থীদের মনোনয়ন দেবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। বিশেষ করে তরুণ, সৎ ও জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য প্রার্থীরা থাকবেন বিবেচনায়।

দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ক্ষেত্রে এবার জনপ্রিয়তাই হবে অন্যতম মাপকাঠি। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যরা জানান, দলের দুর্দিনে যারা পাশে ছিলেন তাদেরও মূল্যায়ন করা হবে।

তফসিল ঘোষণার সময় ঘনিয়ে এসেছে। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ তাই শুরু হয়ে গেছে। তাদের অতীত কর্মকাণ্ডের রিপোর্ট পৌঁছে গেছে সভাপতির হাতে।

এবার পরিস্থিতি ভিন্ন তাই প্রার্থীদের নিয়ে নানা জরিপ চালাচ্ছে ক্ষমতাসীন দলটি। আগামী নভেম্বর মাসে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করার কথা এরইমধ্যে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আগামী বছরের জানুয়ারির প্রথম দিকে নির্বাচন করার পরিকল্পনা রয়েছে সাংবিধানিক সংস্থাটির।

এমন অবস্থায় কেমন প্রার্থী মনোনয়ন পাবে এমন প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মুহাম্মদ ফারুক খান জানান, প্রতিবারের মতো অন্যান্য যোগ্যতার সাথে করোনাকালীন প্রার্থীর এলাকায় কী ভূমিকা ছিলো তা বিশেষভাবে বিবেচনা করা হবে ।

তিনি বলেন, চারটি প্রধান মাপকাঠির ওপর বিবেচনা করে মনোনয়ন দেয়া হয়। প্রথম বিষয়টি হলো- এলাকায় প্রার্থীর জনপ্রিয়তা। দুই, প্রার্থীর সঙ্গে দলের সম্পর্ক।

তিন নম্বরে বিবেচনা করা হবে, করোনাকালীন সময়ে প্রার্থী এলাকায় কী ধরনের কর্মকাণ্ড করেছেন। সব শেষে দেখা হচ্ছে, প্রার্থীর নামে এলাকায় কোনও বদনাম আছে কি না।

মুহাম্মদ ফারুক খান আরও বলেন, আমাদের যে কোনো নির্বাচন, সে জাতীয় নির্বাচনই হোক অথবা স্থানীয় নির্বাচন, আমরা প্রথমেই দেখছি- এলাকায় প্রার্থীর জনপ্রিয়তা।

আগামী নির্বাচনে দলের সেবা করার দীর্ঘ ইতিহাস থাকা সাবেক সংসদ সদস্যরাও মনোনয়ন পাবেন বলে জানান আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের সদস্য কাজী জাফরুল্লাহ।

আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের এ সদস্য বলেন, সবচেয়ে বেশি যেটা আসবে- যে, গরিবের পাশে কারা দাঁড়াচ্ছে। কারা মানুষকে সহায়তা করছে। কারা এলাকার মানুষের জন্য চিন্তা-ভাবনা করছে। করোনায় যারা ভূমিকা রেখেছেন- জনগণের কাছেই তাদের ভূমিকা থাকবে।

দলীয় সভাপতি নেতাদের সব ফোরামেই মনোনয়ন নিয়ে কড়া বার্তা দিচ্ছেন। তাই মনোনয়ন প্রত্যাশীরা এলাকায় মানুষের কাছে থাকার চেষ্টা করছেন। জনগণের সাথে প্রার্থীর যোগাযোগই হবে বড় মাপকাঠি।

এবার ক্ষমতাসীন দল কোন প্রার্থীদের মনোনয়ন দেবে তা আগাম জানিয়ে দেবে, যাতে অন্যান্য মনোনয়নপ্রত্যাশী প্রার্থীদের মধ্যে কোনো সংকট তৈরি না হয়, জানালেন মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যরা।

জাগরণ/রাজনীতি/আওয়ামীলীগ/এসএসকে