• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
প্রকাশিত: নভেম্বর ৬, ২০২৩, ০১:১৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ৬, ২০২৩, ০১:১৬ এএম

আফগানিস্তানে পপি চাষ কমেছে ৯৫%

আফগানিস্তানে পপি চাষ কমেছে ৯৫%
ছবি ● ফাইল ফটো

তালেবান ক্ষমতায় আসার পর আফগানিস্তানে প্রায় পুরোপুরি বন্ধের পথে আফিম উৎপাদন। ২০২১ সালে ক্ষমতা গ্রহণের পরের বছরই পপি চাষ নিষিদ্ধ করে তালেবান সরকার।

ফলে দেশটিতে এখন ৯৫ শতাংশ আফিম উৎপাদনই বন্ধ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।  রোববার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

জাতিসংঘের ড্রাগস অ্যান্ড ক্রাইম অফিসের রিপোর্টে বলা হয়, গত বছরের এপ্রিলে তালেবান সরকার পপি চাষ নিষিদ্ধ করার পর আফগানিস্তানে পোস্ত চাষ এবং আফিমের উৎপাদন ৯০ শতাংশেরও বেশি কমে গেছে।

২০২২ সালে দেশটিতে ২ লাখ ৩৩ হাজার হেক্টর জমিতে চাষ হয়েছিল পপি। কিন্তু ২০২৩ সালে এসে তা কমে এসেছে ১০ হাজার ৮০০ হেক্টরে।

আফগানিস্তান বিশ্বের ৮০ ভাগ আফিম উৎপাদনকারী দেশ হিসেবে এতদিন পরিচিত ছিল। এই পপি থেকেই আফিম ও হেরোইন মাদক উৎপন্ন হয়। এই মাদকের প্রধান বাজার ইউরোপ ও এশিয়া।  

আফিম উৎপাদন কমে যাওয়ায় আফগান কৃষকরা পড়েছেন আর্থিক সংকটে। জাতিসংঘের কর্মকর্তারা বলেন, আফিমের অবৈধ ব্যবসার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সাহায্য করলেও আয় কমে যাওয়া আফগানিস্তানের দুর্বল অর্থনীতির জনগোষ্ঠীর জন্য ঝুঁকিও রয়েছে। কারণ, তারা দীর্ঘদিন ধরেই তাদের জীবিকা নির্বাহের জন্য পপি ব্যবসার ওপর নির্ভর করত।

জাগরণ/আন্তর্জাতিক/এসএসকে