• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৮, ২০১৯, ০৩:২৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১৩, ২০১৯, ০৯:০১ পিএম

সমাজ থেকে সাম্প্রদায়িকতা নির্মূল করতে হবে: পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় 

জাকির হোসেন
সমাজ থেকে সাম্প্রদায়িকতা নির্মূল করতে হবে: পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় 
অভিনয়শিল্পী পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়; ফাইল ফটো

 

সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহ্বায়ক বিশিষ্ট অভিনয় শিল্পী পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, সমাজ থেকে সাম্প্রদায়িকতা নির্মূল করতে হবে। বাঙালির জাতীয়তার ইতিহাস চিরায়ত অসাম্প্রদায়িকতার এক অবিনাশী গল্প। হাজার বছরের অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে ধর্মকে নিয়ে আর কোনো রাজনীতি করা চলবে না। আমাদের জাতীয় জীবনে যখনই ঘনিয়ে এসেছে অমানিশার কালো ছায়া, বিপন্ন করতে চেয়েছে আমাদের সম্প্রীতির সাজানো বাগান, আমরা জেগে উঠেছি। তাদের প্রতিহত করেছি, সৃষ্টি করেছি নতুন ইতিহাসের।

দৈনিক জাগরণকে দেয়া এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এসব কথা বলেন। 

পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এ অঞ্চলের পারস্পরিক সৌহার্দ্য বিনষ্ট করার অপচেষ্টা চলেছে বারেবারে। এখনো আমরা সাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক শক্তি নির্মূল করতে পারিনি। তাই যে কোনো সময় আঘাত আসতে পারে, আমরা আগে থেকে প্রস্তুত থাকতে চাই। আমরা জানি, এই দেশের অধিকাংশ জনগোষ্ঠী সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী ও সাম্যের পক্ষে। আমাদের এখন ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। 

তিনি বলেন,  ১৯৫২, ’৫৪, ’৬৯ আর ’৭১-এ একতাবদ্ধ হয়ে আমরা অসাম্প্রদায়িক নরমাংসভুক হিংস্র শকুনের দলকে রুখে দিয়েছি। আমাদের হাজার বছরের ইতিহাস মিলন আর সম্প্রীতির ইতিহাস। এখানে ঘৃণ্য সাম্প্রদায়িকতার স্থান নেই। সমাজ থেকে সাম্প্রদায়িকতা নির্মূল করতে হবে। ধর্মান্ধ ও সাম্প্রদায়িক শক্তিকে রুখে দিতে সমাজের সর্বস্তরের ঐক্য প্রয়োজন। ধর্মের দোহাই দিয়ে যারা আমাদের মুক্তিযুদ্ধের আদর্শকে জলাঞ্জলি দিতে চায়, তাদের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হবে। ধর্ম যার যার বাংলাদেশ আমার- এই বোধ নতুন করে ছড়িয়ে দিতে হবে সবার মাঝে। সম্প্রীতি বাংলাদেশ সে প্লাটফর্মের কাজ করবে।

জাহো/আরআই