• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২০, ১২:৪৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২০, ২০২০, ১২:৪৪ পিএম

৪ সপ্তাহের আগাম জামিন প্রথম আলো সম্পাদকের

জাগরণ প্রতিবেদক
৪ সপ্তাহের আগাম জামিন প্রথম আলো সম্পাদকের
প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান -ছবি : সংগৃহীত

ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল স্কুল অ‌্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী নাইমুল আবরারের মৃত্যুর ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ৪ সপ্তাহের আগাম জামিন পেয়েছেন প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান। এ ছাড়া বাকি ৫ আসামিকে অভিযোগ আমলে না নেয়া পর্যন্ত গ্রেফতার বা হয়রানি না করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।  

সোমবার (১৯ জানুয়ারি) বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে দুপুর ১২টার দিকে শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। 

অন্য আসামিরা হলেন- প্রথম আলোর সহযোগী সম্পাদক আনিসুল হক (কিশোর আলোর সম্পাদক), কিশোর আলোর জ্যেষ্ঠ সহ সম্পাদক মহিতুল আলম, প্রথম আলোর হেড অব ইভেন্ট অ্যান্ড অ্যাকটিভেশন কবির বকুল, নির্বাহী শাহ পরাণ তুষার এবং নির্বাহী শুভাশীষ প্রামাণিক।

মতিউর রহমানসহ ছয়জনের জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এম আমীর-উল ইসলাম, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন এবং আইনজীবী সুমাইয়া আজিজ ও প্রশান্ত কর্মকার।

রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মোমতাজ উদ্দিন ফকির ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সারওয়ার হোসেন।

রোববার (১৯ জানুয়ারি) বিচারপতি ওবায়দুল হাসান এবং বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ জামিন শুনানির জন্য সোমবার দিন ধার্য করেন।

১৬ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্র নাঈমুল আবরার রাহাতের মৃত্যুর ঘটনায় প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

২০১৯ সালে ১ নভেম্বর (শুক্রবার) ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ ক্যাম্পাসে প্রথম আলোর কিশোর সাময়িকী কিশোর আলো আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয় নবম শ্রেণির ছাত্র নাঈমুল আবরার। এরপর হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সেদিনই থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলার পর ময়নাতদন্ত ছাড়াই আবরারের বাবা ছেলের মরদেহ নিয়ে যান। ৬ নভেম্বর (বুধবার) ঢাকার আদালতে দণ্ডবিধির ৩০৪ (এ) ধারায় অবহেলায় মৃত্যুর অভিযোগ এনে প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমানসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন নাইমুল আবরারের বাবা। 

এসএমএম

আরও পড়ুন