• ঢাকা
  • বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০, ০১:৩৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০, ০২:০০ পিএম

ছাত্রাবাসে দলবেঁধে ধর্ষণ: আরো ৩ জনের রিমান্ড

সিলেট সংবাদদাতা
ছাত্রাবাসে  দলবেঁধে ধর্ষণ: আরো ৩ জনের রিমান্ড

সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে দলবেধেঁ ধর্ষণ মামলায় আরো তিনজনকে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২ টার দিকে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুর রহমানের আদালতে হাজির করা হয় এজাহারভুক্ত আসামি রনি এবং সন্দেহভাজন আসামি রাজন ও আইনুলকে। ৭ দিনের রিমান্ড চাইলে বিচারক ৫ দিনের পুলিশ হেফাজত মঞ্জুর করেন।

এর আগে মামলার ৬ নম্বর আসামি মাহফুজুর রহমানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন জানান, গোপন খবর পেয়ে সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে গোয়াইনঘাট উপজেলার হরিপুর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সকাল১০টার দিকে কানাইঘাট পুলিশ শাহপরান থানায় মাহফুজকে হস্তান্তর করে। তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে হাজির করা হতে পারে বলে জানিয়েছে এসএমপি।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মামলার আসামিরা মহামারি করোনার কারণে কলেজ ছাত্রাবাস বন্ধ থাকলেও এরা প্রভাব খাটিয়ে ছাত্রাবাসের বেশ কয়েকটি কক্ষ দখল করে সেখানে বসবাস করছিল এবং নানা অপকর্ম করছিল। সন্ধ্যার পরে তারা মদ-জুয়ার আসর বসাত বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার রাতে তারা স্বামীর কাছ থেকে স্ত্রীকে তুলে নিয়ে দলবেধেঁ ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ছয়জনের নাম উল্লেখ করে মোট নয়জনের বিরুদ্ধে ওই তরুণীর স্বামী শাহপরান থানায় মামলা করেন। যে ছয়জনের নাম তিনি উল্লেখ করেছেন, তারা সবাই ছাত্রলীগের কর্মী হিসেবে পরিচিত।

জাগরণ/এমআর