• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর, ২০২০, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
প্রকাশিত: অক্টোবর ২২, ২০২০, ১২:২১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ২২, ২০২০, ১২:২১ পিএম

কায়সারের সামনে ফাঁসির রশি, মৃত্যু পরোয়ানা ট্রাইব্যুনালে

জাগরণ ডেস্ক
কায়সারের সামনে ফাঁসির রশি, মৃত্যু পরোয়ানা ট্রাইব্যুনালে
ফাইল ছবি

একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় হবিগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গণহত্যা ও ধর্ষণের মতো মানবতাবিরোধী অপরাধে সাবেক প্রতিমন্ত্রী সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সারের মৃত্যু পরোয়ানা আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল পৌঁছেছে।

বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখা থেকে ট্রাইব্যুনালে এই পরোয়ানা পাঠানো হয়।

এর আগে সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সারের মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখে গত ১৪ জানুয়ারি সংক্ষিপ্ত রায় ঘোষণা করেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।

২০১৪ সালের ২৩ জানুয়ারি সৈয়দ কায়সারকে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। রায়ে সাতটি অভিযোগে তাকে মৃত্যুদণ্ড, চারটিতে যাবজ্জীবন ও তিনটিতে মোট ২২ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়। ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন সৈয়দ কায়সার। পরে আপিল বিভাগ তার মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখে রায় ঘোষণা করেন। রায়ে তিনটি অভিযোগে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখেন আদালত। এছাড়া চারটি অভিযোগ থেকে খালাস পান তিনি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, আপিল বিভাগের রায়ের অনুলিপি পাওয়ার পর রায় পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদনের জন্য সৈয়দ কায়সার ১৫ দিন সময় পাবেন। রিভিউ খারিজ হলে সরকার কারাবিধি অনুযায়ী তার দণ্ড কার্যকর করতে পারবে। তবে শেষ সুযোগ হিসেবে রাষ্ট্রপতির কাছে তিনি প্রাণভিক্ষার সুযোগ পাবেন। সেটিও খারিজ হলে আইন অনুযায়ী তার ফাঁসির দণ্ড কার্যকর করতে কোনো বাধা থাকবে না। 

জাগরণ/এমআর