• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: মার্চ ২৬, ২০১৯, ০৩:০৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ২৬, ২০১৯, ০৯:১৮ পিএম

শহীদ মিনার থেকে স্মৃতিসৌধ পর্যন্ত অদম্য পদযাত্রা

জাগরণ প্রতিবেদক
শহীদ মিনার থেকে স্মৃতিসৌধ পর্যন্ত অদম্য পদযাত্রা
কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে জাতীয় সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে শুরু হয় পদযাত্রা কর্মসূচি -ছবি : জাগরণ

‘শোক থেকে শক্তি : অদম্য পদযাত্রা’ স্লোগান ধারণ করে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধ পর্যন্ত অদম্য পদযাত্রার কর্মসূচি আয়োজন করেছে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর ও পর্বতারোহীদের সংগঠন অভিযাত্রী।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ)  ভোর সোয়া ৬টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে জাতীয় সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে কর্মসূচি শুরু হয়। পরে সূচনা পর্বে অভিযাত্রীর উপদেষ্টা মফিদুল হক এবং ইনাম আল হক শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন। পরে পদযাত্রীরা মুক্তির গান কণ্ঠে তুলে ২৫ মার্চ কালরাতের ভয়াল স্মৃতিবিজড়িত স্থান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলে উপস্থিত হন। সেখানকার বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তারা। সেখানে তাদের সঙ্গে যুক্ত হন প্রখ্যাত শিশু সাহিত্যিক অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। সেখানে মুহম্মদ জাফর ইকবাল সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন। শহীদদের স্মরণ করে ও পদযাত্রীদের অভিবাদন জানিয়ে তিনি বলেন, এই দেশটাকে স্বাধীন করতে আমরা কত বীর সন্তানদের হারিয়েছি। তার যে দেশটিকে স্বাধীন করার জন্য জীবন দিয়েছে সে দেশটাকে আমরা সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবো। আর এটা করতে পারলেই তাদের আত্মা শান্তি পাবে।

অভিযাত্রী দলটির পদযাত্রা বিভিন্ন এলাকা দিয়ে পরিভ্রমণ করে। তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি চত্বরের স্মৃতি চিরন্তনের পাশ দিয়ে শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের সামনে দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর বাসভবন ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরের উদ্দেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা ত্যাগ করে। পরে আসাদ গেইট এলাকার মুক্তিযুদ্ধ টাওয়ার-১ এর সামনে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের শ্রদ্ধা জানিয়ে পদযাত্রাটি চলে যায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ের মুক্তিযু্দ্ধ জাদুঘরে। সেখান থেকে পদযাত্রা যাবে জল্লাদখানা বধ্যভূমিতে। তারপর ঢাকা বোটানিক্যাল গার্ডেনের ভেতর দিয়ে যাওয়ার কথা রয়েছে রক্ষা বাঁধের চটবাড়ি ঘাট। এভাবেই প্রায় ৩২ কিলোমিটার পথ পেরিয়ে এটি জাতীয় স্মৃতিসৌধে গিয়ে শেষ হবে।

এসজে/এসএমএম