• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: জুলাই ১, ২০১৯, ০৮:৩৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১, ২০১৯, ০৮:৩৫ পিএম

বৃষ্টি দিনের সাজ-পোশাক

জাগরণ ডেস্ক
বৃষ্টি দিনের সাজ-পোশাক

প্রকৃতিতে চলছে পরিবর্তনের পালা। গ্রীষ্মকাল ছেড়ে আমরা বর্ষায় পড়লেও বৃষ্টি এখনও সে হারে হচ্ছে না। আষাঢ়ের মতি গকত বোঝা বড় ভার।  আষাঢ় দিনে  এই রোদ, তো এই বৃষ্টি। সকাল থেকেই হয়তো মেঘলা আকাশ আর গুমোট গরম। অথচ সারাদিন বৃষ্টির দেখা পাওয়া গেল না । আবার  কোন কোন দিন চলে অহোরাত্রি বৃষ্টি। এই বৃষ্টিতে কাপড় ভিজে গেলে বা কাপড়ে কাদা লাগলে শুকানোর সমস্যা একটা বড় ব্যাপার। এছাড়াও বৃষ্টিভেজার পরে যে ঠান্ড লাগে সেটাও অসনক সমস্যার। আর ভেজা পোশাকে থাকলেতো আরও সমস্যা দেখা দেয়। কিছু কাপড় তুলনামূলক কম সময়ে শুকিয়ে যায়। যে পোশাকই পরুন না কেন তা যেন শুকানোর ঝামেলা কমায় সে ব্যাপারে খেয়াল রাখতে হবে। তাই এই আবহাওয়ায় সুতি, সিফন, ডেনিম, সিল্ক, মলমল, জর্জেট, বেক্সি ভয়েল ইত্যাদি কাপড় পরা যায়।

সুতির পোশাক

 সুতি কাপড় স্বাস্থ্যের জন্য তুলনাহীন । আপনার ত্বকের জন্য সবচে উপকারী হলো সুতি ।যেকোন আবহাওয়ার জন্য সুতি উপযোগী। বর্ষাকালে মেঘলা আকাশে গুমোট গরমে সুতির পোশাক পরলে যেমন গরম লাগে না, তেমনই ভিজে গেলে তাড়াতাড়ি শুকিয়েও যায়। হাওয়া চলাচল করার কারণে সুতির পোশাক খুবই আরামদায়ক। সুতির পোশাক অফিসে পরার জন্যও বেশ ভালো।

সিফন কাপড়ের পোশাক


 চলার পথে  বৃষ্টি পড়ে রাস্তা যদি কাদা ভেজা থাকে , তাহলে বাস্তব বুদ্ধি কাজে লাগান। সিফন বা নাইলন এই সব দিনে পরার জন্য সবচেয়ে ভাল। ভিজে গেলে এই সব কাপড় সবচেয়ে তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যায়। সিফন টপ, স্কার্ট, শাড়ি,সালোয়ার, কামিজ সবকিছুই পরতে পারেন। যেকোনো অনুষ্ঠানে পুরুষরাও আজকাল সিফন শার্ট পরছেন। বর্ষার দিনে যেকোনো অনুষ্ঠানের জন্যও এই শার্টগুলো খুবই সুবিধাজনক।

সিল্ক কাপড়ের পোশাক

বর্ষার স্যাঁতস্যাঁতে বোরিং আবহাওয়ায় রং যোগ করে উজ্জ্বল সিল্ক। ক্রেপ সিল্ক, আর্ট সিল্ক, সেমি-তসর সিল্ক বা কটন মিক্স সিল্ক পরতে পারেন। এই সব ব্লেন্ডেড মেটিরিয়ালগুলো খুবই আরামদায়ক। শাড়ি, কুর্তি, টপ,সালোয়ার-কামিজ পাওয়া যায় এই সব কাপড়ের উপর। সিল্কের কাপড় বাতাসে তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যায়।

পোশাক নির্বাচন

বর্ষা মানেই সবুজ প্রকৃতি। আকাশ-জমিন সব মিলে কলাপাতা, নীল, আকাশি আর ধুসর রংয়ের প্রকৃতি। তাই এই সময়ে এসব পোশাকগুলো বেশি ভালো লাগে। কাপড়ের মধ্যে পড়তে পারেন জর্জেট, শিফন, ক্রেপের শাড়ি বা সালোয়ার কামিজ। ভিজলেও তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যায় বলে বর্ষায় এ ধরনের কাপড় পরার জন্য উপযোগী।

যেমন হবে আপনার সাজ

এই আবহাওয়ায় বেশি ভারি মেকআপ  না নেওয়াই ভালো। সাজার আগে খেয়াল রাখতে হবে, প্রসাধনী যেন সাধারণ হয়। সাধারণ সাজ না হলে বৃষ্টি ভিজলে ভোগান্তির শেষ থাকে না। মেকাপের রঙ চারদিকে ছড়িয়ে পোশাকে লাগতে পারে। ফাউন্ডেশনের বেইজ হিসেবে হালকা হলদে ধরনের কমপ্যাক বা ফাউন্ডেশন বেছে নিতে পারেন। এতে স্বাভাবিক ভাবটা থাকবে। পোশাকের সঙ্গে মেকআপে মিল রেখে হালকা বাদামি, কফি রং বা নীলচে আভার আইশ্যাডো লাগিয়ে নিলে অনেক বেশি সুন্দর দেখাবে। তবে রাতের বেলার অনুষ্ঠান হলে একটু গাঢ় করেই চোখটা সাজাতে পারেন। সাথে সুতির পোশেকাকে আপনি বনলতাসে না হন, সুন্দর লাগবে

/ডিজি

Islami Bank
ASUS GLOBAL BRAND