• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর, ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: জুন ২৯, ২০২০, ১২:২৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ২৯, ২০২০, ১০:৪৭ এএম

করোনার দুঃসময়ে সদস্যদের কাছে আস্থার নাম ক্লাব ৯২৯৪

জাগরণ ডেস্ক
করোনার দুঃসময়ে সদস্যদের কাছে আস্থার নাম ক্লাব ৯২৯৪

কোভিড-১৯ একটি ভাইরাসের নাম, একই সাথে এটি একটি আতঙ্কের নাম। সারা বিশ্বে চলছে এর তান্ডব যাতে আক্রান্ত ১ কোটিরও বেশি লোক। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ইতোমধ্যে প্রাণ হারিয়েছে ৫ লাখেরও বেশি মানুষ। বাংলাদেশে ইতোমধ্যে প্রায় এক লক্ষ চৌত্রিশ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছে যার মধ্যে গতকাল পর্যন্ত মারা গেছে ১৬৯৫ জন।

যেহেতু এখনও এই ভাইরাসের কোন কার্যকর ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়নি তাই করোনা নিয়ে আতঙ্কে আছেন সবাই। বিশেষ করে কারো জ্বর হলেই আতঙ্কিত হয়ে পরছেন, যে এটা কি করোনা, নাকি সাধারন জ্বর, কোথায় ডাক্তার দেখাবেন, কি ভাবে এর টেস্ট করাবেন, এছাড়া কারো যদি অক্সিজেনের প্রয়োজন হয় কোথায় যাবেন ইত্যাদি নানা ব্যাপারে দুশ্চিন্তার শেষ নেই। করোনাকালীন এই দুঃসময়ে এর সদস্যদের পাশে এসে দাড়িয়েছে ক্লাব ৯২৯৪। 

ক্লাব ৯২৯৪ একটি ভার্চুয়াল ক্লাব, ফেসবুক কেন্দ্রিক এই ক্লাবের সদস্য সংখ্যা বর্তমানে প্রায় ১৭০০০ যারা সবাই একই ব্যাচের অর্থাৎ সবাই ১৯৯২ সালে এসএসসি এবং ১৯৯৪ সালের এইচএসসি উত্তীর্ণ। প্রায় দুই বছর আগে এই ক্লাবের আত্মপ্রকাশ ঘটে। এই ক্লাবের সদস্যদের রিসোর্সগুলোকে কাজে লাগিয়ে ক্লাব ৯২৯৪ বর্তমানে এর সদস্য এবং তাদের পরিবারবর্গকে করোনাকালীন সময়ে দিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন সেবা যার মধ্যে আছে ডাক্তারদের মাধ্যমে টেলিমেডিসিন সেবা, অক্সিজেন সরবরাহ, কোভিড টেস্টের ব্যবস্থা, জরুরী প্লাজমা সরবরাহ, এম্বুলেন্স সার্ভিস, এছাড়া মৃত ব্যক্তির দাফন-কাফন বা সৎকারের ব্যবস্থা করা। 

শুরুতে এই সেবা ঢাকায় সীমাবদ্ধ থাকলেও, পর্যায়ক্রমে তা নারায়ণগঞ্জ ও চট্টগ্রামেও বিস্তৃত হয়েছে। তবে ডাক্তার সেবা সারা বাংলাদেশের জন্য প্রযোজ্য। যারা ডাক্তার হিসাবে সেবা প্রদান করছেন তারা সবাই একই ব্যাচের। গ্রুপের এডমিন এবং ডাক্তারদের নিয়ে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ আছে যেখানে কারো কোন সমস্যা হলে তা তাৎক্ষনিক ঐ গ্রুপে দেয়া হয় এবং ডাক্তারদের সাথে রোগীর সরাসরি যোগাযোগের ব্যবস্থা করে দেয়া হয়। প্রায় ২০ এর অধিক ডাক্তার সেখানে নিরলসভাবে শুধুমাত্র বন্ধুদের সেবা দেয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। 

ক্লাব ৯২৯৪ এই করোনাকালে তাদের সদস্য এবং পরিবারবর্গকে রিসোর্সের প্রাপ্যতার ভিত্তিতে জরুরী অক্সিজেন সেবা, প্লাজমা সেবা, বাসায় এসে কোভিড টেস্টের সুযোগ করে দিচ্ছে। এছাড়া যদি মৃত ব্যাক্তির দাফন-কাফনের প্রয়োজন হয় সেইক্ষেত্রেও ক্লাব ৯২৯৪ সদস্যদের পাশে রয়েছে। ক্লাব ৯২৯৪ এবং এই সকল সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের মধ্যে আলোচনার ভিত্তিতে ক্লাবের জসদস্যদের জন্য অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এই সকল সেবা প্রদান করা হয়। ক্লাবের সদস্যদের এই সংক্রান্ত যাবতীয় খরচ সরাসরি ঐ সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানকে প্রদান করতে হয়। 

এই ব্যাপারে ক্লাব ৯২৯৪ এর প্রতিষ্ঠাতা ও এডমিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আইবিএ অ্যালামনাই ক্লাব লিঃ এর পরিচালক রেজওয়ানুর রব জিয়া দৈনিক জাগরণ কে বলেন, যারা কোভিডে আক্রান্ত হচ্ছেন একমাত্র সেই ভুক্তভগী পরিবারই জানেন তারা কি পরিমান আতঙ্ক ও দুঃসময় পার করছেন। আমরা আমাদের এই ক্লাবের মাধ্যমে তাদের আশ্বস্ত করছি যে তাদের ঐ দুঃসময়ে আমরা তাদের পাশে আছি। যদিও এটা একটা ভার্চুয়াল ক্লাব, এর সকল এডমিন এবং এই সাপোর্টের সাথে যুক্ত সবাই এখানে ভলান্টারিলি কাজ করছেন, তবুও তাদের আন্তরিকতায় কোন ঘাটতি নেই। তারা সবাই দিনরাত বন্ধুদের সেবায় কাজ করে যাচ্ছেন। আমাদের লক্ষ্য এই ক্লাবের মাধ্যমে আমরা সবাইকে নিয়ে ভবিষ্যতে আরো অনেক বড় পরিসরে বিভিন্ন সামাজিক ও গঠনমূলক কাজের সাথে যুক্ত হব। 

ক্লাব ৯২৯৪ এর রয়েছে ইউটিউব ভিত্তিক একটি টিভি চ্যানেল যেখানে এর সদস্যরা তাদের নিজেরদের ও পরিবারের সদস্যদের নানা বিনোদনমূলক ভিডিও, ব্যবসার প্রচারনাসহ নানান ভিডিও দিয়ে থাকে। এছাড়া রয়েছে একটি ভার্চুয়াল ত্রৈমাসিক পত্রিকা যার নাম 'আঙিনা', এর মাধ্যমে সদস্যদের প্রতিভা বিকাশের সুযোগ করে দিয়েছে। খুব শীঘ্রই এর নিজস্ব ওয়েব পোর্টাল তৈরি হবে যেটার কাজ এখন চলমান, সেখানে মেম্বারদের ডাটাবেজসহ বিভিন্ন বিষয় অন্তর্ভূক্ত থাকবে। 

এসকে