• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৪ মে, ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮
প্রকাশিত: এপ্রিল ২২, ২০২১, ০৫:৫৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২২, ২০২১, ১০:৫০ পিএম

যে অভ্যাসগুলো জীবনে সফলতা আনবেই

যে অভ্যাসগুলো জীবনে সফলতা আনবেই

জীবনে সফল হতে কে না চায়! সফল মানুষের গুণগান হয় সব জায়গায়। অন্যদিকে অসফলতা মানুষের জীবনকে হতাশায় নিমজ্জিত করে দেয়। বলা যায়, সফলতা জীবনের পূর্ণতা এনে দেয়। কেউ আছেন সফলতার পেছনে ছুঁটেন, ব্যর্থ হওয়ার পরও বার বার চেষ্টা করেন সফল হওয়ার। তবে সফলতার পেছনে না ছুঁটে নিজেকে প্রস্তুত করলে উল্টো সফলতা আপনার পেছনে ছুঁটে বেড়াবে।

সফলতা হাতের মুঠোয় নিতে নিজের মধ্যে কিছু অভ্যাস রপ্ত করুন। কীভাবে কিছু ভালো নিজের মধ্যে অভ্যাস রপ্ত করবেন তা জানাব আজকের আয়োজনে।


অতীতকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যান

অতীতে নিজের সঙ্গে কী হয়েছে, কেন হয়েছে, কেন ভুল করেছিলেন তা নিয়ে ভাববেন না। বরং অতীতের অভিজ্ঞতায় সামনের সময়টাকে সাজিয়ে নিন। এগিয়ে চলুন। ভালো কিছু অপেক্ষা করছে।


 

পরিকল্পনা করুন

সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য যখন মন স্থির করেছেন তখন কী রকম কাজ করতে চান সেই সংক্রান্ত পরিকল্পনা করুন। পরিকল্পনা করে কাজে এগুলে কাজগুলো সহজ হবে।


বর্তমানকে নিয়ে খুশি থাকুন

বর্তমানে যেমন পরিস্থিতিতেই রয়েছেন তা নিয়ে খুশি থাকুন। মনে রাখবেন, নিজের সন্তুষ্টি না থাকলে অন্য কোনো কাজে অগ্রসর হতে পারবেন না। তাই যখন যেটুকু পাচ্ছেন তাই নিয়েই খুশি থাকুন।


কোনও ক্ষোভ রাখবেন না

নিজেকে নিয়ে বা অন্য কারও ওপর কোনও ক্ষোভ পুষে রাখবেন না।  বরং নিজেকে হালকা রাখার চেষ্টা করুন। কারো ওপর রেগে থাকলে তা নিয়ে আপনার ভেতরেও অস্বস্থিবোধ করবে। তাই যোকোনো ঝামেলা মিটিয়ে নিন। দেখবেন মনের দিক থেকে ভালো থাকবেন।


অসহায়দের সাধ্যমতো সাহায্য করুন

ভালো কাজ নিজের কাছে ফিরে আসে। তাই যথাসম্ভব অসহায়দের সাহায্য করুন। পকেটে কিছু টাকা বাচিয়ে অসহায়দের হাতে তুলে দিন। কারো খাবারের ব্যবস্থা করে দিন। যার ঘরে খাবার কেনার টাকা নেই। নিজের কিছু অব্যবহৃত জামাও দিয়ে দিতে পারেন। এমন সব ছোট ছোট মূহুর্ত ভাগ করে নিন। মানসিকভাবে আনন্দ পাবেন।


নিজের মনের কথা শুনুন

সবসময় নিজের মনের কথা শুনুন। তাহলে যেকোনও কাজে শতভাগ দিতে পারবেন। মন যা চায়, যেভাবে সায় দেয় সেভাবেই  করুন। কেউ জোর করে চাপিয়ে দিলে তা করবেন না। সেক্ষেত্রে বিষয়টি তাকে বুঝিয়ে বলুন এবং নিজের জায়গাটা ঠিক রেখে হাসিমুখে কাটিয়ে দিন।


নিজেকে ভালোবাসুন

নিজেকে ভালোবাসুন, নিজের মতো চারপাশ সাজিয়ে নিন। নিজের কাজকে গুরুত্ব দিন। কেউ কোনও দায়িত্ব দিলে তা পুরোপুরিভাবে পালনে চেষ্টা করুন। মনে রাখবেন, দিন শেষে আপনার সিদ্ধান্তই আপনাকে সফলতার দিকে এগিয়ে নেবে।


 

বন্ধু নির্বাচনে সতর্ক হোন

বন্ধু নির্বাচনে সতর্ক হবেন। সমমানসিকতার বন্ধুদের সঙ্গে মিশুন। যাদের সঙ্গে কথা কিংবা চলাফেরায় আনন্দ পাবেন তাদের সঙ্গেই মিশুন। নিজের চিন্তাভাবনাগুলো শেয়ার করে নিতে পারেন। অন্যদিকে বন্ধুর চিন্তাভাবনার সঙ্গে মিলে নতুন কিছু আবিস্কারও হয়ে যেতে পারে। সেই সঙ্গে একে অন্যের ভালো পরামর্শকও হবেন।