• ঢাকা
  • বুধবার, ০১ ডিসেম্বর, ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
প্রকাশিত: অক্টোবর ২০, ২০২১, ০১:০২ এএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ২০, ২০২১, ০১:০৩ এএম

‘মহানবী (সা.)-এর আগমন ছিল রহমত, বরকত ও মহানন্দের’

‘মহানবী (সা.)-এর আগমন ছিল রহমত, বরকত ও মহানন্দের’
নিজস্ব ছবি

বায়তুশ শরফের পীর আল্লামা মোহাম্মদ আবদুল হাই নদভী বলেন, ‘পবিত্র মিলাদুন্নবী (সা.) আমাদের সবার মনে মহানবীর শিক্ষা, সহনশীলতা, সংযম, হৃদ্যতা, সম্প্রীতি, পারস্পরিক ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা সৃষ্টিতে নিয়ামক শক্তি হিসেবে কাজ করে।’

তিনি বলেন, প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) বিশ্ব মানবতার জন্য আল্লাহর সর্বশ্রেষ্ঠ করুণা ও অনুগ্রহ। মহানবীর আগমন ছিল সব সৃষ্টির জন্য রহমত, বরকত ও মহানন্দের।’

তিনি আরও বলেন, ‘যুগে যুগে নবীপ্রেমিকরা মহানবী (সা.) এর শানে হামদ-নাত রচনা করে ভালোবাসার বহির্প্রকাশ ঘটিয়ে আসছেন।’

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) বায়তুশ শরফ আনজুমনে ইত্তেহাদ বাংলাদেশ আয়োজিত পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন উপলক্ষে তিনদিনের কর্মসূচির দ্বিতীয় দিনে ‘শানে মোস্তফা (সা.) মাহফিল’ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। 

বায়তুশ কেন্দ্রীয় মসজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত শানে মোস্তফা (সা.) মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন সাতকানিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ মোতালেব ।

উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন মজলিসুল উলামা বাংলাদেশের মহাসচিব মাওলানা মামুনুর রশিদ নূরী। এ সময় আনজুমানে ইত্তেহাদের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইদ্রিস মিয়া, বায়তুশ শরফ আদর্শ কামিল (অনার্স-মাস্টার্স) মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ড. সাইয়্যেদ মোহাম্মদ আবু নোমান, ড. ঈসা শাহেদী সহ আনজুমনে ইত্তেহাদ বাংলাদেশ, মজলিসুল উলামা বাংলাদেশ ও আনজুমনে নওজোয়ানের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মাওলানা মাহবু্ুবুর রহমান নিজামী ও হাফেজ মাওলানা আবুল কালাম। শানে মোস্তফা (সা.) মাহফিলে স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ের শায়ের, শিল্পীরা হামদ-নাত পরিবেশন করেন।

জাগরণ/এমএ/এমএ