• ঢাকা
  • বুধবার, ১৭ জুলাই, ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: এপ্রিল ৭, ২০১৯, ০৮:৩৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ৮, ২০১৯, ০২:৪৫ এএম

শিল্পী বর্মনের কবিতা

জাগরণ ডেস্ক
শিল্পী বর্মনের কবিতা

স্বপ্ন ভাঙার দিন 

তোর মতো হাত শক্ত করে কেউ ধরেনি এর আগে
তারাদের সাথে সখ্য কখনো হয়নি জানি এর আগে
জীবন নিয়ে ভাবনা নতুন কেউ দেয়নি তোর আগে
আমার সাথে আমার সখ্য কেউ বলেনি তোর আগে।
গভীর রাতে নদীর ধারে কেউ হাঁটেনি তোর আগে
গিটারের সাথে সিগারেট কেউ খাওয়াইনি তোর আগে,
মানিকের চায়ের দোকান- ঝগড়াঝাটি আড্ডাবাজি
স্বপ্ন গড়া স্বপ্ন ভাঙার দিন কেউ আনেনি তোর আগে
ক্যাম্পাস তোকে মিসকরি খুব জীবনের সব ভাঁজে।

 

গল্পটা হোলির

রঙের থেকে বাঁচিয়ে আমায় নিয়ে
হাতের আবির লুকিয়ে সংগোপনে
একদৌড়ে তোর কাছে ছুট, রৌদ্র ফাগুন ভোরে
মাখবো আবির তোকে প্রথম গালে-হাতে কপালে
তখন তুই আবির রাঙা। জমেনা আর খুনসুটি
তোকে নিয়ে গল্পটা ঠিক হোলির। ব্যাস এটুকুই।।

 মধুমাখা রাতে

একদিন আমিও ছিলাম ওখানে
হেমন্তের সকালে শিউলি ঝরা ঘাসে
হয়ত শীতের সন্ধ্যায় মধুমাখা রাতে,
আজ তার চিহ্নমাত্র নাই-
আজ সব স্তুপাকৃত জঞ্জাল
চোখের সজল দিঠি আর
অন্ধবালিকার আলো না দেখা
তীব্র অভিমান।

পিচ্ছিল চেনা পথে

কোন অলৌকিক সাফল্য নেই লোকটির
এলোমেলো চুল আর সাদামাটা পোশাক,
কোন ঈর্ষার চোখ তাকে বিব্রত করেনি
এক অপ্রস্তুত বিবর্ণ কুয়াশাময় জীবন
তবু সদ্যউঠে হাসা পূর্ণিমা চাঁদ ডাকে
স্বপ্নাক্রান্ত মনটা তাকে টেনে নিয়ে যায়
খামচে ধরা মূল্যবোধ পিচ্ছিল চেনা পথে

জীবনের দূরত্ব
জীবনের অদরকারি কথাগুলো কবে যেন
অক্সিজেনের বুদবুদের মতো মিলিয়ে গেছে,
নিথর জলে গোটা চারেক দরকারী কথা থমকে আছে-
বিন্দু বিন্দু উপেক্ষা থেকে জন্ম নেয়া
ক্ষোভ-নিঃসঙ্গতা আজ অতল সাগর,
একই ছাদের নিচে জীবনের দূরত্ব
যোজন যোজন আলোকবর্ষ দূরে

শুধু হাতের বদল

ও পদ্মা পাড়ের মেয়ে
কাঁদিস কেন ঘর পেলিনা বলে?
সেই তো শুধু হাতের বদল
শরীর নিয়েই সব
কেউ ছোঁয়নি মন
ওটুকু আমার হয়েই থাক
ও মেয়ে তুই কলঙ্কিনি
বিচার বসে হাঁটে-,
আমার উপর দোষ চাপিয়ে
ওদের আজন্ম পাপ ঢাকে।

Islami Bank
ASUS GLOBAL BRAND