• ঢাকা
  • শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১, ২৭ চৈত্র ১৪২৭
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৫, ২০১৯, ১১:৫৯ এএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১৫, ২০১৯, ১১:৫৯ এএম

বৈশাখে রচিত পঙক্তিমালা

লাবন্য সায়মা রহমানের  কবিতা

লাবন্য সায়মা রহমানের  কবিতা

আর্জি

বিধি গো আমার একটাই আর্জি একটাই।
ওই জনমে, সে যদি ভরা গাঙ হয় 
আমারে তার ঢেউ বানাইও, ছলাৎ ছলাৎ ঢেউ।
উথাল পাথাল তার লগেই থাকমু।

তারে নকশী কাঁথা বানাইলে বিধি আমারে 
কইরো রংবাহারী সুতা, করবা তো কও?
আমি নকশায় নকশায় তারে জড়ায়া থাকমু।

একটা উড়াল হাঁস যদি সে হয়, আমি হমু তার 
ওড়নের ডানা, সে উড়লে আমি বাতাসের গন্ধ নিমু ।
বিধি আমারে তার ডানা বানাইও তুমি।

সে যদি সিংহ হয় তয় আমারে তার কেশর কইরো,
করবা তো বিধি? আমারে তার কেশর কইরো।
আমি তার শোভা হইয়া থাকমু ।

আমারে তার লগে লগেই রাইখো বিধি, লগে লগে।
আমি জন্মে জন্মে তার লগে বাচুম তার লগেই মরুম।
আর কিচ্ছু চাইনা বিধি আমি আর কিচ্ছু না।


হিরন্ময় দুঃখ

বিপ্লব তুমি প্রেম তুমি 
প্রলয় তুমি ঝড় তুমি

বদলে নেবার শক্তি তুমি
আর্তনাদ ভোলাও তুমি 
করুনাময় পরম তুমি
ইস্পাতসম কঠিন তুমি 
বজ্র নিনাদ আগুন তুমি
ভাসাও আবার দোলাও তুমি
ফাগুন দখিনা হাওয়া তুমি
পেলব মায়ার পরশ তুমি

অবুঝ চাওয়া সাধন তুমি
উন্মত্ত চুম্বন ও শোকে তুমি
ব্যাকুল বকুল গন্ধে তুমি
গ্রহান্তরের ছায়ায় তুমি 
 
বিপ্লব তুমি প্রেম তুমি
আমার ভালোবাসা তুমি


সমীকরন

মেনে নাও মেয়ে মানিয়ে নাও
পুরুষতো একটু এমন তেমন
নিজে বদলাতে হবে জেনে নাও
পুরুষতো তবু দরিয়া দিল
মেনে নাও মেয়ে মানিয়ে নাও
ছোঁক ছোঁক ইতর কিন্তু পুরুষ
সেই শ্রেষ্ঠ এটা বুঝে নাও
নেশা নেশা ঘোর মাতাল প্রবল
হ্যা হ্যা তারেই প্রনতি জানাও
পুরুষতো একটু এমন তেমন
তুমি মেয়ে তুমিই মানিয়ে নাও।

 


ভ্যালেন্টাইন 

সকল জনম রবো বাঁধা তোমার পিরিতে
কসম আমি হবো রাধা তোমারই বিরহে 

বন্ধু তুমি দূরেই থাইকো হইয়ো না আপন
মায়া যাদুর বসত ভিটা হইবো পোড়া মন

পরম যতনে আবেগটারে করিবো লালন
জাইনোরে ভালোবাসি তোমায় নিরঞ্জন।
'সশ্রুশালয়ে'
হৃদপিণ্ডের বয়স কতো হোলও......
গোনা হয়নিতো কখনো !
সহস্র বছর নাকি বহু আলোক বছর?
শব্দগ্রাহী যন্ত্রটা শুনে নেয়
কায়ক্লেশে পেরে ওঠা লাব-দাব লাব-দাব লাব-দাব লা...ব-দা...ব
ক্লান্ত হৃদযন্ত্রটা  হাঁপায় কোঁকায় !
তাঁর আয়ুরেখার আলপনায় আঁকা মুখটা দেখে মনে হয়
সময় হোলও নাকি বিদায় নেবার !