• ঢাকা
  • রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৩১ ভাদ্র ১৪২৬
প্রকাশিত: জুন ১১, ২০১৯, ০২:৫৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ১১, ২০১৯, ০২:৫৪ পিএম

স্বামীর জন্য বিচারকপত্নীর সাহায্যের আবেদন

মাহমুদুল আলম
স্বামীর জন্য বিচারকপত্নীর সাহায্যের আবেদন


বিচারক স্বামীর চিকিৎসার জন্য আর্থিক সাহায্যের আবেদন করেছেন তার স্ত্রী। ঢাকার ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনালের বিচারক (যুগ্ম জেলা জজ) মো. ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী বাংলাদেশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের সদস্যদের কাছ থেকে সাহায্য চেয়ে এই আবেদন করেন।

সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল বরাবর পাঠানো এই আবেদনে বিচারকপত্নী হাফিজা খাতুন লেখেন, ‘মো. ইসমাইল হোসেন গত ২৪ এপ্রিল তারিখে এজলাস চলাকালীন প্রচণ্ড পেটের ব্যথায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাকে সঙ্গে সঙ্গে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়্। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে বারডেম হাসপাতাল, ঢাকার আইসিইউ-তে স্থানান্তর করা হয়। তিনি বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। হাসপাতালে ডাক্তার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর কিংবা থাইল্যান্ডের কোন হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন। তার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক হওয়ায় স্বাভাবিকভাবে বিমানে করে বিদেশে নেওয়া সম্ভব নয় বিধায় এয়ার এ্যাম্বুলেন্স এর মাধ্যমে তাকে বিদেশে পাঠানো আবশ্যক। এতদ সংক্রান্তে আনুমানিক ১০০০০০০০ (এক কোটি) টাকা প্রয়োজন, যা আমার পক্ষে বহন করা সম্ভবপর নয়। কাজেই তাকে বাংলাদেশ সার্ভিস এসোসিয়েশন এর পক্ষ থেকে এর সদস্যবৃন্দের নিকট থেকে আর্থিক সহযোগিতা প্রয়োজন।

অতএব, মহোদয় সমীপে আকুল আবেদন এই যে, উপরোক্ত বিষয়াদি বিবেচনা করত: আর্থিক সহযোগিতা করার জন্য সদয় মর্জি হয়।’

আবেদন পত্রে সাহায্য পাঠানোর জন্য ডাচ্ বাংলা ব্যাংক লি:, সঞ্চয়ী হিসাব নং – ১৩৬.১০১.৯৩৭৫২ এবং বিকাশ নম্বর- ০১৭২২৯৯৯৯৫৫ দেয়া হয়েছে।

এর পরিপ্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার মো. গোলাম রব্বানী বিচার বিভাগীয় সব কর্মকর্তাদের অবহিত ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য চিঠি পাঠান। এতে হাফিজা খাতুনের চিঠির বিষয়বস্তু উল্লেখ করে বলা হয়, 
‘এমতাবস্থায়, বেগম হাফিজা খাতুন কর্তৃক তাঁর স্বামী ঢাকার ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনালের বিচারক (যুগ্ম জেলা জজ) জনাব মো. ইসমাইল হোসেন-এর চিকিৎসার প্রয়োজনের আর্থিক সাহায্যের আবেদন বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য আপনাকে অনুরোধ করা হলো। একই সাথে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে আপনার অধীনস্থ একজন কর্মকর্তাকে এতদ উদ্দেশ্যে দায়িত্ব প্রদানক্রমে এ সংক্রান্ত কার্যক্রম সমন্বয় করার জন্যও অনুরোধ করা হলো।’

এমএ/আরআই

Islami Bank