• ঢাকা
  • বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬
প্রকাশিত: আগস্ট ১২, ২০১৯, ০৭:৫৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ১২, ২০১৯, ০৭:৫৬ পিএম

হাসপাতালের বেডে ঈদ কাটছে ডেঙ্গুরোগীদের

জাগরণ প্রতিবেদক
হাসপাতালের বেডে ঈদ কাটছে ডেঙ্গুরোগীদের

এবার স্বজনদের সঙ্গে নয়; হাসপাতালের বেডে শুয়ে ওষুধ-পথ্য, চিকিৎসক-নার্সদের সঙ্গে ঈদ কাটছে ডেঙ্গুরোগীদের। এজন্য এসব রোগীদের মানসিক অবস্থা অনেকটাই বিপর্যস্ত।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে- গত ২৪ ঘণ্টায় (১১ আগস্ট সকাল ৮টা থেকে ১২ আগস্ট সকাল ৮টা পর্যন্ত) ঢাকা শহরসহ দেশের ৬৩ জেলায় (রাজশাহী বাদে) ২০৯৩ জন ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন, বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৮ হাজার ৬জন।

ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালগুলোয় যে কয়েক হাজার মানুষ চিকিৎসা নিচ্ছেন, তাদের বেশিভাগেরই প্রতি বছর প্রস্তুতি থাকে গ্রামে গিয়ে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগির। তারা ঢাকায় থাকায় এবার ঈদুল আজহার ছুটিতে অন্য ঈদুল আজহার ছুটির চেয়ে বেশি মানুষ থাকলো রাজধানীতে।

ঢাকার সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভর্তি ব্যবসায়ী রাশেদ। তার ছোট ভাই খালেক জানান, ভাইয়ের যে অবস্থা তাতে বাড়ি যাওয়া সম্ভব না। হাসপাতালেই ঈদ কাটাতে হচ্ছে। বিকালে বাসা থেকে রান্না করা গরুর মাংস এসেছে। ভাবি-বাচ্চা সবাই সকাল থেকে হাসপাতালে।

সোমবার (১২ আগস্ট) সরেজমিনে বিভিন্ন হাসপাতালে দেখা যায়, ডেঙ্গুরোগীদের স্বজনরা ভীড় জমিয়েছেন। অসুস্থ্য স্বজনের জন্য গরুর মাংস রান্না করে এনেছেন। গল্প করছেন পশু কোরবানির চিত্র নিয়ে, হতাশা প্রকাশ করছেন অসুস্থ্যতা নিয়ে।

সোহরাওয়ার্দী মেডিকেলে ডেঙ্গুরোগী আহমেদ হোসেনের জন্য গরুর মাংস এনেছেন তার খালা রহিমা খাতুন। তিনি বলেন, ওর মা মারা গেছেন। ছেলেটার জন্য আজকে অনেক খারাপ লাগছে। আমাদের বাসায় থেকে পড়াশোনা করে।

হেলথ অ্যান্ড হোপে ভর্তি রাজন। তার গ্রামের বাড়ি পাবনায়। তার বাবা-মা গ্রাম থেকে ঢাকায় চলে এসেছেন ছেলের সেবা করতে। রাজনের মা উম্মে সালমা বলেন, প্রতি বছর ছেলেটা বাড়িতে যাইতো, এইবার আর পারলো না।

মিরপুর ডেল্টা মেডিকেলে ভর্তি ডেঙ্গুরোগী রাব্বির (ছদ্মনাম, হাসপাতালের শর্ত থাকায় রোগীর প্রকৃত নাম দেয়া হয়নি) আপন চাচাত ভাই ফয়সাল (ছদ্মনাম)। তিনি বলেন, এবার কোরবানি ঈদের প্রস্তুতিই আমাদের মরে গেছে। রাব্বি ঢাকায় থেকে পড়াশোনা করে। বাবা-মা, ভাই-বোন সবাই গ্রামে। ওর অবস্থা ভাল না। গ্রামে ওর বাবা-মা, তারা ঢাকায় আসতে ছটফট করছেন। আজকে সকাল থেকে বহুবার কল দিয়েছেন। আমিও এবার বাড়ি যাইনি ওর জন্য।

স্বাস্থ্য অধিদফতরাধীন হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম জানায়, নতুন আক্রান্ত ২০৯৩ জন নিয়ে এ বছর (১২ আগস্ট পর্যন্ত) সারাদেশে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে গিয়ে দাঁড়ালো ৪৩ হাজার ২৭১ জনে।

এর আগে বাংলাদেশে ডেঙ্গুজ্বরে এত রোগী আক্রান্ত হয়নি কখনও।

আরএম/এসকে

আরও পড়ুন