• ঢাকা
  • বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬
প্রকাশিত: অক্টোবর ৯, ২০১৯, ০৬:৩৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ৯, ২০১৯, ০৬:৪১ পিএম

ফাহাদ হত্যার ধরনে সন্দেহ হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর

জাগরণ প্রতিবেদক
ফাহাদ হত্যার ধরনে সন্দেহ হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বুয়েটের শিক্ষার্থী ফাহাদের হত্যাকাণ্ড প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ওই হত্যায় বাইরে কোনো ইনজুরি নাই, সব ইনজুরি ভেতরে। তখন আমরা সন্দেহ হলো, ২০০১ সালে ওই সময় আমাদের বহু নেতা-কর্মীকে এমনভাবে পেটানো হতো, হাতুরি দিয়ে কিংবা এমনভাবে পেটানো হতো, তাতে বাইরে কোন ইনজুরি নাই। ভেতরে ইনজুরি হতো, তারা মারা যেত।

বুধবার (৯ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সম্প্রতি ভারত ও জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দেয়া নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব মন্তব্য করেন।

তিনি বরেন, স্বাভাবিকভাবেই একটা সন্দেহের ব্যাপার, যে এরা কারা? এ সময় তিনি আরও বলেন, হ্যা ক্ষমতায় থাকলে অনেকেই দল করতে চলে আসে। আর কিছু তো লোক তো থাকেই, যারা হচ্ছে পার্মানেন্টে গর্ভমেন্ট পার্টি।

শেখ হাসিনা বলেন, একজন সংসদ সদস্য ছিলেন খালেক সাহেব, তিনি বলতেন, আমি তো সব সময় গর্ভমেন্ট পার্টি করি, এখন গর্ভমেন্ট বদলালে আমি কি করবো? পার্লামেন্টেই এ কথা বলেছিলেন। এমন কিছু তো থাকেই। তিনি আরও বলেন, এমন ঘটনা যারা ঘটাবে তারা আমার পার্টির আমি কখনও এটা মেনে নেব না।

ছাত্ররাজনীতিতে ছাত্রলীগের কর্মীদের হত্যার ঘটনা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী প্রশ্ন রাখেন, বুয়েটে তো আমাদেরও অনেক নেতা-কর্মী হত্যা হয়েছে। কোনো দিন কি কেউ বিচার পেয়েছে? ঢাকা বিশ্ববিদ্যায়সহ সারা বাংলাদেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রতিদিন বোমাবাজি, গুলি হতো।

উল্লেখ্য, বিশ্ব অর্থনীতি ফোরামের ভারত অর্থনৈতিক সম্মেলনে যোগদানের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী গত ৩ থেকে ৬ অক্টোবর ৪ দিনের সফরে নয়াদিল্লি যান। সেখানে তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন। এর আগে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ (ইউএনজিএ)-এর ৭৪তম অধিবেশনে যোগদানের উদ্দেশে তিনি ২২ থেকে ২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র সফর করেন। 

এএইচএস/একেএস

আরও পড়ুন

Islami Bank