• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২০, ১২:৫৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২০, ২০২০, ১২:৫৭ পিএম

আবদুল মান্নানের মরদেহে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা 

জাগরণ প্রতিবেদক
আবদুল মান্নানের মরদেহে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা 
আবদুল মান্নানের মরদেহে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা -ছবি : সংগৃহীত

আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও সংসদ সদস্য আবদুল মান্নান মরদেহে শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (২০ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় মরহুমের নামাজে জানাযা শেষে শ্রদ্ধা জানান তিনি।

এর আগে রাষ্ট্রপতির পক্ষে তার সামরিক সচিব এবং ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে রাষ্ট্রীয় সশস্ত্র সালাম জানানো হয়।

আবদুল মান্নান এর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন, দুঃসময়ে দলের সাহসী কর্মী হিসেবে প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রামে তিনি ছিলেন সক্রিয়। তার মৃত্যু আওয়ামী লীগের পাশাপাশি রাজনৈতিক অঙ্গনে অপূরণীয় ক্ষতি।

শনিবার (১৮ জানুয়ারি) কৃষিবিদ আবদুল মান্নান সকাল সোয়া ৮টার দিকে ঢাকার ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। 

আবদুল মান্নান ১৯৫৩ সালের ১৯ ডিসেম্বর বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার হিন্দুকান্দি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা জালাল উদ্দিন সরদার। তিনি ২০০৮, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি একাদশ সংসদের কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যও ছিলেন। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের ভিপি ছিলেন আবদুল মান্নান।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকায় তার ধানমন্ডির বাসভবনে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর পরিবারের লোকজন তাকে পপুলার হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হলে দুপুর আড়াইটায় তাকে ল্যাবএইড হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এরপর তিনি ওই হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন। তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়।

হেলিকপ্টারযোগে বগুড়ার সোনাতলায় নিয়ে যাওয়া হবে আবদুল মান্নানের মরদেহ। সেখানে আরেক দফা জানাযা শেষে গ্রামের বাড়ি সারিয়াকান্দায় চিরনিদ্রায় শায়িত করা হবে ক্ষণজন্মা এই রাজনীতিবিদকে।

এএইচএস/এসএমএম

আরও পড়ুন