• ঢাকা
  • সোমবার, ৩০ মার্চ, ২০২০, ১৬ চৈত্র ১৪২৬
প্রকাশিত: মার্চ ২৫, ২০২০, ০৯:০১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ২৫, ২০২০, ০৯:০১ পিএম

‘বিনামূল্যে ঘর, ৬ মাসের খাদ্য এবং নগদ অর্থ প্রদানের নির্দেশ’

জাগরণ প্রতিবেদক
‘বিনামূল্যে ঘর, ৬ মাসের খাদ্য এবং নগদ অর্থ প্রদানের নির্দেশ’
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ● টিভি থেকে নেয়া

কোভিড-১৯ দুর্যোগ মোকাবেলায় রফতানিমুখী শ্রমিক-কর্মচারীদের জন্য ৫ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ অর্থ দিয়ে শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা দেয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, নিম্ন আয়ের ব্যক্তিদের ‘ঘরে-ফেরা’ কর্মসূচির আওতায় নিজ নিজ গ্রামে সহায়তা প্রদান করা হবে। গৃহহীন ও ভূমিহীনদের জন্য বিনামূল্যে ঘর, ৬ মাসের খাদ্য এবং নগদ অর্থ প্রদান করা হবে। জেলা প্রশাসনকে এ ব্যাপারে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বুধবার (২৫ মার্চ) সন্ধ্যায় স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে ভাষণে এ ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক এরই মধ্যে ব্যবসায়-বান্ধব বেশকিছু উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক আগামী জুন মাস পর্যন্ত কোনও গ্রাহককে ঋণ খেলাপি না করার ঘোষণা দিয়েছে।

বিশ্বে মহামারি আকার ধারণা করা করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে বাংলাদেশের মানুষকে রক্ষায় সরকার এখন সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ সময় নিম্নবিত্তদের সহায়তায় বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনা জনস্বাস্থ্যসহ বৈশ্বিক অর্থনীতির ওপর নেতিবাচক প্রভাব তৈরি করেছে। বাংলাদেশের ওপরও এ আঘাত আসতে পারে।

তিনি বলেন, বাজারে কোনও পণ্যের ঘাটতি নেই। দেশের ভেতর ও বাইরের সঙ্গে সরবরাহ চেইন অটুট আছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি না করার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। এ সঙ্কটময় সময়ে সবাইকে সহনশীল থাকার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, এ সঙ্কটময় সময়ে আমাদের সহনশীল এবং সংবেদনশীল হতে হবে। কেউ সুযোগ নেয়ার চেষ্টা করবেন না। বাজারে কোনও পণ্যের ঘাটতি নেই। অযৌক্তিকভাবে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি করবেন না। জনগণের দুর্ভোগ বাড়াবেন না। সর্বত্র বাজার মনিটরিং-এর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এসএমএম