• ঢাকা
  • শনিবার, ৩০ মে, ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
প্রকাশিত: মার্চ ৩০, ২০২০, ০৫:১৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৩০, ২০২০, ০৫:১৬ এএম

মোহাম্মদপুরের রেড মার্ক ভবন থেকে প্রবাসীরা লাপাত্তা

জাগরণ ডেস্ক
মোহাম্মদপুরের রেড মার্ক ভবন থেকে প্রবাসীরা লাপাত্তা

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের যে ৫৪টি ভবনকে রেড মার্ক করা হয়েছিল। সে ভবনগুলোতে থাকা করোনা সন্দেহভাজন প্রবাসীর অধিকাংশ লাপাত্তা হয়েছেন।

পার্সপোর্টে থাকা স্থায়ী ও অস্থায়ী কোন ঠিকানাতেই তারা নেই বলে নিশ্চিত করেছেন মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ। ফলে ওই ভবনগুলোয় বসবাসকারীদের চলাচল স্বাভাবিক করে দিয়েছে পুলিশ।

মোহাম্মদপুর থানার ওসি আব্দুল লতিফ বলেন, রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পক্ষ থেকে পুলিশ সদর দপ্তরে একটি লিস্ট পাঠানো হয়েছিল। সে লিস্ট অনুযায়ী মোহাম্মদপুরের ৫৪টি ভবনকে আমরা রেড মার্ক করেছি।

ভবনগুলোতে বসবাসকারীদের মধ্যে বেশ কয়েকজন প্রবাসী ছিল। যারা সাম্প্রতিক সময়ে বিদেশ থেকে এসেছেন। তাছাড়াও কারো কারো আবার করোনা ভাইরাসের উপসর্গ ছিল।

মোহাম্মাদপুর থানা পুলিশের এই ওসি বলেন, আমরা ভবনগুলো নজরদারিতে রেখেছিলাম। তবে খোঁজ নিয়ে দেখেছি, যারা প্রবাসী ছিলেন তারা এই ঠিকানায় আর নেই। তারা সম্প্রতি সময়েই ঠিকানা পরিবর্তন করেছেন।

পাসপোর্ট এর তথ্য অনুযায়ী স্থায়ী ও অস্থায়ী কোন ঠিকানাতেই তাদের পাওয়া যায়নি। আবার বেশ কয়েকজনকে এই ভবনগুলোতে পাওয়া গেছে।

ওসি আরো বলেন, যারা ভবনগুলোতে অবস্থান করছে তারা পুলিশের দেওয়া নির্দেশনা গুলো মেনে চলছেন। যারা ঠিকানা পরিবর্তন করেছেন আমরা তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি। তাছাড়াও পুলিশ সদর দপ্তর থেকে তারা যেখানেই থাকুক না কেন, সেখানকার থানাতে পাসপোর্ট নিয়ে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

ভবনগুলো মোহাম্মদপুর এলাকায় অবস্থিত কাদেরাবাদ হাউজিং, মোহাম্মদিয়া হাউজিং, চান মিয়া হাউজিং, নবোদয় হাউজিং, ঢাকা উদ্যানসহ এই এলাকাগুলোতে অবস্থিত।

এসকে