• ঢাকা
  • শনিবার, ৩০ মে, ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
প্রকাশিত: মার্চ ৩১, ২০২০, ০৩:৩৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৩১, ২০২০, ০৪:০৪ পিএম

আইইডিসিআর

দেশে নতুন করে করোনা শনাক্ত ২ জন

জাগরণ প্রতিবেদক
দেশে নতুন করে করোনা শনাক্ত ২ জন
ড. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা ● টিভি থেকে নেয়া

দেশে নতুন করে আরও ২ জনের শরীরে করোনাভাইরাসজনিত রোগ কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ড. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) করোনাভাইরাস নিয়ে অনলাইনে নিয়মিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান তিনি।

এই নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে ৫১ জনের শরীরে। তাদের মধ্যে আগেই মারা গেছেন ৫ জন। আরও ৬ জনসহ সুস্থ হয়ে উঠেছেন  ২৫ জন। 

ফ্লোরা জানান, গেল ২৪ ঘণ্টায় সন্দেহভাজন হিসেবে নেয়া ১৪০টি নমুনার মধ্যে ২ জনের শরীরে কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা মোট ৫১।  হটলাইনে ফোন এসেছিল ৩ হাজার ৬৩৭ টি।

তিনি জানান, নতুন শনাক্ত হওয়া দু’জনই পুরুষ। তাদের বয়স ৫৫ ও ৫৭ বছর। তাদের একজন সৌদি প্রবাসী। অন্যজন কীভাবে আক্রান্ত হয়েছেন তার প্রমাণ খোঁজা হচ্ছে। 

গত কয়েকদিন ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে কয়েকজন মারা গেছেন যাদের কোভিড আক্রান্ত কিনা সন্দেহ করা হয়েছিল। তাদের ব্যাপারে সেব্রিনা জানান, আমরা খবর পাওয়া পর নমুনা সংগ্রহ করেছি। কিন্তু কারও দেহে ভাইরাস শনাক্ত হয়নি। অর্থ্যাৎ তারা কেউ ভাইরাসে আক্রান্ত ছিল না।

ফ্লোরা আরও জানান, করোনা নিয়ন্ত্রণ এবং প্রতিরোধের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে। আমরা যাদের বাড়িতে থাকতে বলছি তারা অবশ্যই বাড়িতে থাকেন। যদি বের হতেই তবে মাস্ক পরে বের হন।

মীরজাদী বলেন, সন্দেহভাজনের নমুনা সংগ্রহের পর পরীক্ষা-নিরীক্ষার করার এরই মধ্যে ১০ টি ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। আরও ১৮টি ল্যাব গঠনের প্রক্রিয়া চলছে। আশা করা যাচ্ছে ৫ এপ্রিলের মধ্যে বাকী ল্যাবগুলো স্থাপন করা সম্ভব হবে।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা গেলে আইইডিসিআরের হটলাইন কিংবা জেলা পর্যায়ের হট লাইনেও যোগাযোগ করার সুযোগ রয়েছে। সুতরাং আপনারা সরাসরি হাসপাতালে না গিয়ে হট লাইনে যোগাযোগ করুন। আমরা আবারও অনুরোধ করছি, আমাদের দেয়া পরামর্শগুলো মেনে চলার জন্য।

এর মধ্যেই ৯২ হাজার টেস্ট কিট সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানায় সংস্থাটি। দেশের প্রায় সব মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে করোনার নমুনা সংগ্রহের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে বলেও জানায় সংস্থাটি।

এসএমএম