• ঢাকা
  • শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০, ০৭:১১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০, ০৭:১১ পিএম

প্রবাসীদের ধৈর্য ধরতে বললেন দুই মন্ত্রী

জাগরণ ডেস্ক
প্রবাসীদের ধৈর্য ধরতে বললেন দুই মন্ত্রী

সৌদি আরব থেকে ছুটি কাটাতে আসা বাংলাদেশিদের ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর প্রশ্নে সৌদি কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের জন্য রোববার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলেছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ।


তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ভিসার মেয়াদ তিন মাস বাড়ানোর জন্য সৌদি আরব সরকারকে চিঠি দেয়া হয়েছে। কিন্তু সৌদি আরবে সরকারি ছুটি থাকায় সিদ্ধান্তের জন্য রোববার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।’

অন্যদিকে আজ ইস্কাটন গার্ডেনে প্রবাসীকল্যাণ ভবনে যাওয়া প্রবাসীদের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলাপকালে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, ‘চলতি সমস্যা কয়েকদিনের জন্য, কিছুদিন সময় দেন সমাধান হয়ে যাবে।’

মহামারী করোনার কারণে সৌদি আরব থেকে ছুটিতে দেশে এসে আটকে পড়েছেন অনেক প্রবাসী। ফ্লাইট বন্ধ থাকায় আটকে পড়া কেউ সৌদিতে যেতে পারেননি। করোনার আগে যারা দেশে এসেছিলেন, যেতে না পেরে অনেকের ভিসা ও আকামার মেয়াদ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে অনেকের ভিসা, আকামার মেয়াদ শেষ হবে। এই সময়ের মধ্যে যেতে না পারলে অনেকে কাজ হারাবেন। কিন্তু যাওয়ার টিকিট না পেয়ে বিপাকে পড়েছেন তারা।


এরই প্রেক্ষাপটে প্রবাসী কল্যাণ এবং পররাষ্ট্রসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর একটি বৈঠকও আজ অনুষ্ঠিত হয়। পরে বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন আন্দোলনরত সৌদি প্রবাসীদের বিশৃঙ্খলা না করার অনুরোধ জানান।

তিনি বলেন, ‘এ ধরনের বিক্ষোভ বা আন্দোলন সৌদি সরকার পছন্দ করেন না। আপনাদের প্রতি অনুরোধ আপনারা বিশৃঙ্খলা করবেন না। এ ধরণের কর্মকাণ্ড করলে সৌদি আরবের কাছে ভুল বার্তা যাবে। আমরা সৌদি সরকারের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি। আপনারা শান্ত থাকলে এ সমস্যার সমাধান দ্রুত সম্ভব।’

দু’জন মন্ত্রীই আটকে পড়া প্রবাসীদের কয়েকদিন ধৈর্য্য ধরার আহ্বান জানিয়েছেন।

দীর্ঘদিন বন্ধের পর শর্ত সাপেক্ষে ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর অনুমতি দেয় সৌদি সরকার। এরপর সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স বাংলাদেশে বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনার জন্য বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) কাছে অনুমতি চায়। একইভাবে বিমানও বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনা করতে সৌদি অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষের কাছে অনুমতি চায়।


বেবিচক সৌদি এয়ারলাইন্সকে সপ্তাহে দুটি ফ্লাইট চালানোর অনুমতি দিলেও বিমানকে অনুমতি দেয়নি সৌদি কর্তৃপক্ষ। এর ফলে সৌদি এয়ারলাইন্সের অনুমতি বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয় বেবিচক।

সৌদি আরবে যেতে উড়োজাহাজের টিকিট না পাওয়ায় কর্মস্থলে ফিরতে পারছেন না প্রবাসীরা। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে প্রবাসীরা গত রোববার থেকে রাজধানীতে বিক্ষোভ করছেন।

তাদের অভিযোগ, লাইনে দাঁড়ালেও টিকিট দিচ্ছে না সাউদিয়া। রিটার্ন টিকিট থাকার পরও অতিরিক্ত ২৫ হাজার টাকা রিইস্যু করতে নিচ্ছে এয়ারলাইন্সটি। একইসঙ্গে টিকিট বিক্রি করছে ৯৫ হাজার টাকায়।

ভিসার মেয়াদ বাড়ানো ও টিকিটের দাবিতে আজও রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেন সামনে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয় ঘেরাও করে সৌদি ফেরত প্রবাসীরা। বুধবার সকাল সোয়া ১০টা থেকে তারা মন্ত্রণালয়ের সামনের সড়কে অবস্থান নেন। পরে প্রবাসীদের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকে বসেন মন্ত্রী ইমরান আহমদ।

জাগরণ/এমইউ