• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২০, ৯ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০, ০২:১০ এএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০, ০২:১৩ এএম

নিভৃত পল্লী থেকে বৈশ্বিক নেতৃত্বের মহামঞ্চ

আধুনিক বাংলাদেশের স্থপতি শেখ হাসিনার জন্মদিন আজ

জাগরণ প্রতিবেদক
আধুনিক বাংলাদেশের স্থপতি শেখ হাসিনার জন্মদিন আজ
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা - জাগারণ গ্রাফিক্স ডেস্ক

আশ্বিনের সোনালি রোদ্দুর ছড়ানো দুপুরে-টুঙ্গিপাড়া গ্রামে আমার জন্ম।… আমার শৈশবের স্বপ্ন-রঙিন দিনগুলো কেটেছে গ্রাম-বাংলার নরম পলিমাটিতে, বর্ষার কাদা-পানিতে, শীতের মিষ্টি রোদ্দুরে, ঘাসফুল আর পাতায় পাতায় শিশিরের ঘ্রাণ নিয়ে, জোনাকজ্বলা অন্ধকারে ঝিঁঝির ডাক শুনে, তাল-তমালের ঝোপে বৈচি, দীঘির শাপলা আর শিউলি-বকুল কুড়িয়ে মালা গেঁথে, ধুলামাটি মেখে, বর্ষায় ভিজে খেলা করে।- শেখ হাসিনা

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, বিশ্বমানবতার বিশ্ববন্ধু, স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ রাষ্ট্রের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ কন্যা এবং ’৭৫ পরবর্তী বাংলাদেশের ইতিহাসের এ যাবত সবচেয়ে সফলতম রাষ্ট্রনেতা আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী ড. শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন আজ।

১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর মধুমতি নদীবিধৌত তৎকালীন গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামের নিভৃত পল্লীতে বিশ্ব রাজনীতির অন্যতম কিংবদন্তী পিতা শেখ মুজিবুর রহমান ও মাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের কোল আলোকিত করে পৃথিবীতে আসেন শিশু শেখ হাসিনা। বাবা-মায়ের প্রথম সন্তান শেখ হাসিনার শৈশব-কৈশোর কাটে বাইগার নদীর তীরে টুঙ্গিপাড়ায় বাঙালির চিরায়ত গ্রামীণ পরিবেশে, দাদা-দাদির কোলে-পিঠে।

বাংলাদেশের সর্বস্তরের মানুষের পাশাপাশি দেশের প্রতিটি ক্ষেত্র ও পর্যায় থেকে আধুনিক বাংলাদেশের স্থপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি নানা মাধ্যমে আসছে জন্মদিনের অভিনন্দন ও ভালোবাসার বার্তা। সেই সঙ্গে ভারত ও চীনসহ বিশ্বের বহু রাষ্ট্র ও সংস্থার বরাতে আসছে বিশ্ববাসীর শুভেচ্ছা বার্তাও।

রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান হিসেবে ছাত্রজীবন থেকে প্রত্যক্ষ রাজনীতির সঙ্গে জড়িত হন শেখ হাসিনা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্র্যাজুয়েশন ডিগ্রি লাভকারী শেখ হাসিনা তৎকালীন ছাত্রলীগের অন্যতম নেতা ছিলেন।

এশীয় অঞ্চলে গণতন্ত্র, শান্তি ও মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং নারী শিক্ষার বিস্তার, শিশুমৃত্যুর হার হ্রাস ও দারিদ্র্য বিমোচনের সংগ্রামে অসামান্য ভূমিকা রাখার স্বীকৃতি হিসেবে দেশি-বিদেশি বেশ কিছু পুরস্কার ও সম্মানে ভূষিত হয়েছেন শেখ হাসিনা। বিশেষ করে বৈশ্বিক জলবায়ু এবং রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মানবিক আশ্রয় প্রদানের ইস্যুতে তাঁর অনন্য সাধারণ ভূমিকা সারাবিশ্বের মানুষের কাছে ভিন্ন উচ্চতায় প্রশংসিত হয়েছে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে নিজের অনন্য কীর্তির স্বীকৃতি স্বরূপ এ যাবত তিনি যে সকল সম্মাননা অর্জন করেছেন এরমধ্যে সাউথ-সাউথ ভিশনারি পুরস্কার-২০১৪, শান্তিবৃক্ষ-২০১৪, জাতিসংঘ পুরস্কার-২০১৩ ও ২০১০, রোটারি শান্তি পুরস্কার-২০১৩, গোভি পুরস্কার-২০১২, সাউথ-সাউথ পুরস্কার-২০১১, ইন্দিরা গান্ধী শান্তি পুরস্কার-২০১০, পার্ল এস. বার্ক পুরস্কার-২০০০, সিইআরইএস মেডাল-১৯৯৯, এম কে গান্ধী পুরস্কার-১৯৯৮, মাদার তেরেসা শান্তি পুরস্কার-১৯৯৮, ইউনেস্কোর ফেলিক্স হোফুয়েট-বোয়েগনি শান্তি পুরস্কার-১৯৯৮ প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। এছাড়া পরিবেশ সংরক্ষণে অসামান্য অবদানের জন্য জাতিসংঘের পরিবেশ বিষয়ক সর্বোচ্চ মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার ‘চ্যাম্পিয়নস অব দ্য আর্থ’ পুরস্কারেও ভূষিত হয়েছেন শেখ হাসিনা।

তাঁর অসামান্য নেতৃত্বের বর্তমান বিশ্বের সংখ্যাগরিষ্ঠ উন্নয়নশীল ও স্বল্পোন্নত রাষ্ট্রগুলোর রোল মডেল হিসেবে বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে বিশেষ সমীহ অর্জন করেছে বাংলাদেশ। ডিজিটাল বাংলাদেশ ভিশন বাস্তবায়নের ধারাবাহিকতায় সংগ্রামী এই রাষ্ট্র নায়কই আধুনিক বাংলাদেশের স্থপতি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে যথাযোগ্য মর্যাদার সাথে পালন করবে আওয়ামী লীগ।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আগামীকাল ২৮ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকাল সাড়ে ৩টায় আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সীমিত সংখ্যক নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণে স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া ২৮ সেপ্টেম্বর কেন্দ্রীয়ভাবে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে বাদ জোহর এবং দেশের সকল মসজিদে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

এদিকে সকাল ৯টায় আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ বিহার (মেরুল বাড্ডা), সকাল ১০টায় খ্রিস্টান এসোসিয়েশন বাংলাদেশ (সিএবি) মিরপুর ব্যাপ্টিস চার্চ (২৯ সেনপাড়া, পর্বতা, মিরপুর-১০), সকাল ৬টায় তেজগাঁও জকমালা রাণীর গির্জা এবং বেলা ১১টায় ঢাকেশ্বরী মন্দিরে বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হবে। এসব কর্মসূচিতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন।

একইদিনে ঢাকাসহ সারাদেশে সকল সহযোগী সংগঠন আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল, বিশেষ প্রার্থনা ও আলোকচিত্র প্রদর্শনীসহ সকল কর্মসূচি যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে পালন করবে।

শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষে সারাদেশের সকল মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং সকল ধর্মীয় উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে পালন করার জন্য আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠন, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং সংস্থাসমূহের সকল স্তরের নেতা-কর্মী, সমর্থক, শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

একইসাথে তিনি আওয়ামী লীগের সকল জেলা, মহানগর, উপজেলা, পৌর, ইউনিয়ন, ওয়ার্ডসহ সমস্ত শাখার নেতৃবৃন্দকে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির সাথে সামঞ্জস্য রেখে যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে অনুরূপ কর্মসূচি গ্রহণ করে দিবসটি পালন করার অনুরোধ জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন দিন যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ তিন দিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, আগামীকাল বাদ জোহর জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে মিলাদ, দোয়া ও তবারক বিতরণ কর্মসূচি গ্রহণ। ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে মিলাদ, দোয়া ও তবারক বিতরণ। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ বুধবার দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে আওয়ামী যুবলীগের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে আগামীকাল সোমবার বেলা ১১টায় কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল।

এছাড়া দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী, বাকপ্রতিবন্ধী ও অসহায় মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার ও বস্ত্র বিতরণ। একই কর্মসূচি পালিত হবে মহানগর, জেলা, উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে। বাদ মাগবির যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ প্রতিটি ইউনিটে প্রধানমন্ত্রীর জীবনীর উপর প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শনী করা হবে।

আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে তার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে আগামীকাল সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ দেশব্যাপী প্রতিটি জেলা, মহানগর উপজেলা, থানা, পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল এবং প্রার্থনা সভার আয়োজন করেছে।

জাগরণ/এসকে