• ঢাকা
  • শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২১, ২০২১, ০৪:১৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২১, ২০২১, ০৮:১২ পিএম

‘ভারত-বাংলাদেশ সুসম্পর্কের উপহার টিকা’

‘ভারত-বাংলাদেশ সুসম্পর্কের উপহার টিকা’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সুসম্পর্কের উপহারই হলো এই করোনার টিকা। এর মাধ্যমে দুই দেশের সম্পর্ক আরও শক্তিশালী হলো।”

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ভারতের পক্ষ থেকে উপহার হিসেবে দেওয়া ২০ লাখ ডোজ করোনার টিকা হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে ভারতের পক্ষ থেকে বাংলাদেশের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে টিকা হস্তান্তর করেন ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

আব্দুল মোমেন বলেন, “এটি একটি ঐতিহাসিক দিন। ১৯৭১ সালে ভারত যেভাবে আমাদের সহায়তা করেছিল, তেমনি আজ করোনার মহামারিতেও পাশে দাঁড়িয়েছে। এ জন্য দেশটিকে অসংখ্য ধন্যবাদ।”

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ভারত-বাংলাদেশ একসঙ্গে কাজ করবে জানিয়ে ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী বলেন, “উপহার হিসেবে বাংলাদেশকেই সবচেয়ে বেশি টিকা পাঠিয়েছে ভারত। যৌথভাবে মহামারি মোকাবিলা করার জন্য এ উপহার।”

টিকা হস্তান্তর অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, “ভারত ভ্যাকসিন উপহার দেওয়ার মাধ্যমে বন্ধুত্বের প্রমাণ দিয়েছে। আমরা যেকোনো দুর্যোগ একসঙ্গে মোকাবিলা করব।”

এর আগে সকাল ১১টার দিকে প্রায় ২০ লাখ ডোজ টিকা নিয়ে বাংলাদেশে পৌঁছায় এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ ফ্লাইট।