• ঢাকা
  • শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১, ২৭ চৈত্র ১৪২৭
প্রকাশিত: মার্চ ৩, ২০২১, ০৯:৪৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৩, ২০২১, ০৯:৪৩ পিএম

লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যু

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তদন্ত প্রতিবেদন 

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তদন্ত প্রতিবেদন 

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। 

বুধবার (২ মার্চ) তদন্ত কমিটির প্রধান সুরক্ষা সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব তরুণ কান্তি শিকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

প্রতিবেদনটি সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিবকে জমা দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে বলেন তরুণ কান্তি শিকদার, “ তার (সচিব) কাছ থেকে মন্ত্রীর কাছে যাবে। তবে, তদন্ত রিপোর্টে কি আছে, তা জানাতে অপারগ আমি।”

এর আগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে বন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনা তদন্তে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব তরুণ কান্তি শিকদারকে আহ্বায়ক করে এই কমিটি গঠন করা হয়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা বিভাগের উপসচিব মো. মনিরুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানা যায়।

কমিটিকে আগামী চার কার্যদিবসের মধ্যে এই বিষয়ে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবুল কালাম, ময়মনসিংহের কারা উপমহাপরিদর্শক মো. জাহাঙ্গীর কবির ও গাজীপুর জেলা কারাগারের সহকারী সার্জন ডা. কামরুন নাহার। কমিটির সদস্যসচিব করা হয়েছে সুরক্ষা সেবা বিভাগের উপসচিব আরিফ আহমদকে। 

প্রজ্ঞাপনে কমিটির কার্যপরিধি নির্ধারণ করে দেওয়া হয়। এতে বলা হয়, লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুতে কারা কর্তৃপক্ষের কোনো প্রকার গাফিলতি ছিল কি-না? যদি থাকে তাহলে দায়ী ব্যক্তিদের চিহ্নিত করা। এই বন্দি কারাগারে আসার পর তার কোনও স্বাস্থ্যগত সমস্যার বিষয়ে কারা কর্তৃপক্ষ অবহিত ছিলেন কি-না? যদি থাকেন তাহলে সেই বিষয়ে যথাযথ চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে কি-না? যদি না হয়ে থাকে তাহলে দায়ী ব্যক্তিদের চিহ্নিত করা।

এদিকে মৃত্যুর ঘটনা তদন্তে  দুই সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করে গাজীপুর জেলা প্রশাসন। ২৬ ফেব্রুয়ারি রাতে গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম। কমিটির সদস্যরা হলেন- জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওয়াসিউজ্জামান চৌধুরী ও উম্মে হাবিবা ফারজানা। কমিটিকে আগামী দুই কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি রাতে কাশিমপুর কারাগারে মৃত্যু হয় ডিজিটাল আইনে গ্রেপ্তার মুশতাক আহমেদের। ২৫ ফেব্রুয়ারি দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। ওই দিন রাত পৌনে ১০টায় রাজধানীর আজিমপুর কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।

এদিকে কারাগারে মুশতাকের মৃত্যুতে শাহবাগে বিক্ষোভ করে প্রগতিশীল ছাত্রসংগঠনগুলো। বিকেলে শাহবাগ মশাল মিছিল করে তারা। এ সময় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর কারণ জানতে ‘প্রয়োজনে’ তদন্ত কমিটি করা হবে বলে জানিয়েছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।