• ঢাকা
  • শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১, ২৭ চৈত্র ১৪২৭
প্রকাশিত: মার্চ ৭, ২০২১, ০৯:৪৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৭, ২০২১, ০৯:৪৪ পিএম

যুদ্ধ ও সংগ্রামের মধ্যে পার্থক্য বললেন ফখরুল

যুদ্ধ ও সংগ্রামের মধ্যে পার্থক্য বললেন ফখরুল

যুদ্ধ হচ্ছে অস্ত্র হাতে সশস্ত্রভাবে প্রত্যক্ষ শক্তর বিরুদ্ধে লড়াই আর সংগ্রাম একজন মানুষ ও জাতি করে বলে উল্লেখ করেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

রোববার বিকেলে ঐতিহাসিক ৭ মার্চের এক আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব এ কথা বলেন।

যুদ্ধ ও সংগ্রাম এটা আমাদের দীর্ঘদিনের দাবি করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “ত্যাগী মানুষ, শ্রদ্ধেয় নেতা যারা আমাদের জন্য সংগ্রাম করেছেন তাদের কথা আমাদের উচ্চারণ করা প্রয়োজন। আমাদের উচ্চারণ করা প্রয়োজন শেরে বাংলা একে ফজলুল হক সাহেবের কথা, উচ্চারণ করা প্রয়োজন মাওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর কথা, উচ্চারণ করা প্রয়োজন শেখ মুজিবুর রহমানের কথা, উচ্চারণ করা প্রয়োজন অলি আহাদ সাহেবের কথা। এরকম অসংখ্য মানুষ আছেন যারা এদেশের মানুষের পরিবর্তনের জন্য সংগ্রাম করেছেন। কিন্তু যুদ্ধ-এটা আমাদের কথা নয়, এটা ইতিহাস, এটা তথ্য, এটা একটা বইয়ে সবকিছু লেখা আছে। যারা গবেষণা করছেন, তাদের গবেষণায় উঠে এসেছে যে, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের যে ঘোষণা, সেই ঘোষণাই সমগ্র জাতিকে উদ্দীপ্ত করেছে স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ার জন্য। দ্যাট ইজ দ্যা ট্রুথ। এটাতে কাউকে ছোট করা হয় না, এটাতে কাউকে বড় করা হয় না।”

আওয়ামী লীগ নতুন প্রজন্মকে ভুল ইতিহাস জানাচ্ছে বলে অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, “আওয়ামী লীগ কী করেছে? আওয়ামী লীগ অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে এই নতুন প্রজন্মকে সেই ইতিহাস থেকে বঞ্চিত করে তাদেরকে ভ্রান্ত ইতিহাস দিচ্ছে। একটা ধারণা দিচ্ছে যে, একটি মাত্র দল, একজনই মাত্র ব্যক্তি আর একটি গোষ্ঠী যারা এদেশের সব কিছু এনে দিয়েছে। সব স্বাধীনতা এনে দিয়েছে, উন্নয়ন এনে দিয়েছে, এখানে মানুষের অধিকারগুলো এনে দিয়েছে। মিথ্যা ইতিহাস দিয়ে তারা প্রজন্মকে বিভ্রান্ত করছে।”

ফখরুল বলেন, “আমরা সেই ধারণা, সেই সত্যটা তুলে ধরতে চাই। আমরা তুলে ধরতে চাই এদেশের স্বাধীনতার জন্য কখন কবে থেকে কারা কারা প্রাণ দিয়েছে, রক্ত দিয়েছে, সংগঠিত করেছে, সংগ্রাম করেছে।”