• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ মে, ২০২১, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
প্রকাশিত: এপ্রিল ১০, ২০২১, ০৭:০৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১০, ২০২১, ০৭:০৩ পিএম

রায়েরবাজারে খোঁড়া হয়েছে আগাম কবর, জনমনে শঙ্কা

রায়েরবাজারে খোঁড়া হয়েছে আগাম কবর, জনমনে শঙ্কা

রাজধানীর রায়েরবাজার কবরস্থানে আগাম কবর খোঁড়া নিয়ে জনমনে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। করোনায় মানুষের মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় এমন আগাম প্রস্তুতি বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

শনিবার সরেজমিনে দেখা গেছে, বধ্যভূমির স্মৃতিসৌধ সংলগ্ন কবরস্থানে বেশ কয়েকটি কবর খুঁড়ে রাখা হয়েছে। এ নিয়ে উৎসুক জনতার ভিড় দেখা গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, “এত এত কবর কেন খোঁড়া হলো, সেটাই চিন্তার বিষয়। আগে এমনটা দেখিনি। হয়তো করোনায় অনেক মানুষ মরছে বলেই এমন প্রস্তুতি নিয়ে রাখছে কর্তৃপক্ষ।”

একদিকে দেশের করোনা পরিস্থিতি দিন দিন ভয়াবহ হয়ে উঠছে। আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যাও আগের দিনের রেকর্ড ভাঙছে। শনিবার দেশে সর্বোচ্চ ৭৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। 

এ বিষয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (অঞ্চল-৫) সহকারী সমাজকল্যাণ কর্মকর্তা আব্দুল হাই তালুকদারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জাগরণকে বলেন, “কেন আগাম কবর খুঁড়ে রাখা হয়েছে, সেই বিষয়টি আমি ঠিক জানি না। খবর নিয়ে জানাতে পারবো। তাছাড়া অগ্রীম কবর যদি খোঁড়া হয়েও থাকে তবে সমস্যা কী?”

করোনার ভয়াবহতা স্বীকার করে তিনি আরো বলেন, “দেশে প্রতিদিন যে হারে মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে, মারা যাচ্ছে, তাতে করে আগে থেকেই কবর খুঁড়ে রাখা অস্বাভাবিক কিছু নয়। চূড়ান্ত কথা হলো, মৃত মানুষটি কবরের মাটি পাচ্ছে কি না, সেটা দেখা।”

এ বিষয়ে প্রতিবেদককে সংশ্লিষ্ট মোহরারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলেন এই সমাজকল্যাণ কর্মকর্তা।

কবরস্থানের জ্যেষ্ঠ মোহরার আব্দুল আজিজের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জাগরণকে বলেন, “আপনি সমাজকল্যাণ অধিদপ্তরের প্রধান অফিসে ফোন দেন। তারা ভালো বলতে পারবেন।”

আগাম কবর খুঁড়ে রাখার তথ্যটি নিশ্চিত করে আব্দুল আজিজ বলেন, “অগ্রীম কবর খুঁড়ে রাখা হয়েছে এটা সত্য। তবে এটা করোনা জন্য না। সবসময়ই এমনটা খুঁড়ে রাখা হয়।”

এই জ্যেষ্ঠ মোহরার জানান, ইতোমধ্যে ১০-১২টি কবর খুঁড়ে রাখা হয়েছে। প্রতিদিনই করোনায় মারা যাওয়া মরদেহ আসছে। কবর দেওয়া হচ্ছে।