• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ মে, ২০২১, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
প্রকাশিত: এপ্রিল ২০, ২০২১, ০১:৫৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২০, ২০২১, ০২:৩৬ পিএম

লকডাউন নিয়ে সর্বত্র অনীহা

লকডাউন নিয়ে সর্বত্র অনীহা

করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণে চলমান বিধিনিষেধের মেয়াদ আরও ৭ দিন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হলেও রাজধানীতে লকডাউন নিয়ে মানুষের মধ্যে তেমন কোনো সচেতনতা নেই। প্রথম কয়েকদিন সচেতনতা দেখা গেলেও আজ মানুষের ভিড় বেড়েছে। গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও রাস্তায় প্রচুর ব্যক্তিগত গাড়ি দেখা গেছে। দেখা গেছে যানজটও। মানুষের মুখে মাস্ক থাকলেও বেশিরভগাই থুতনির ওপর।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) সকাল থেকে প্রায় ৪০ শতাংশ দোকানপাট খোলা দেখা গেছে। মাঝে মাঝে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা দেখা গেলেও তারা কেমন একটা কড়াকড়ি দিচ্ছেন না। পুলিশ আসলে দোকান বন্ধ করে আবার পুলিশ চলে গেলে দোকান খুলে ফেলেন ব্যবসায়ীরা। এমন অবস্থা মোহাম্মদপুরসহ রাজধানীর বেশিরভাগ এলাকায়।

লকডাউন কার্যকরে অন্যান্য দিন পুলিশের তৎপরতা দেখা গেলেও আজ তেমন একটা উদ্যোগ চোখে পড়েনি, তেমনি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখারও বালাই ছিল না কোথাও।

মঙ্গলবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, মোহাম্মদপুর বাজার, টাউন হল এবং শেরশাহ সুরী রোডে মানুষের সমাগম। অনেকগুলো দোকানপাট খোলা। রাস্তায় পাবলিক গাড়ি না থাকলেও প্রাইভেট গাড়ি লক্ষ্য করা গেছে। প্রচুর পরিমাণে রিকশা, মোটরসাইকেল, কাভার্ডভ্যান দেখা গেছে। মাঝে মাঝে জ্যাম পড়তেও দেখা গেছে।

টাউন হল বাজারের কয়েকজন বিক্রেতা জানান, সরকার লকডাউন দিছে ঠিক আছে। কিন্তু মানুষ নিজের প্রয়োজনীয় জিনিসগুলো নেওয়ার জন্য কি বাজারে আসবে না? বেচাবিক্রি না করতে পারলে আমরা চলবো কীভাবে?

টাউন হল এলাকার জিহাদ সেনিটারি দোকানের এক বিক্রেতা জানান, “মানুষ বাসায় কতক্ষণ বসে থাকবে?”

আরও পড়ুন