• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১, ০১:৪০ এএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১, ০২:০১ এএম

বাংলাদেশের জন্য অশনিসংকেত

বাংলাদেশের জন্য অশনিসংকেত
ফাইল ফটো

২০৫০ সালের মধ্যে বাস্তুচ্যুত হবে ২ কোটি বাংলাদেশি

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি পেয়ে ২০৫০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের প্রায় ১৭ শতাংশ এলাকা পানির নিচে তলিয়ে যেতে পারে। এতে বাংলাদেশের ২ কোটি মানুষ বাস্তুচ্যুত হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচলেট মানবাধিকার পরিষদের ৪৮তম অধিবেশনে একটি প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এমন তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, মালদ্বীপের স্থলভাগের ৮০ শতাংশের বেশি এলাকা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে মাত্র এক মিটারেরও কম উচ্চতায় রয়েছে। এরই মধ্যে দেশটি জলবায়ু পরিবর্তনের মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।

সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করবে।

ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড এবং ভিয়েতনাম সহ দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার বেশিরভাগ এলাকায় ২০৫০ সালের মধ্যে দৈনিক উচ্চ জোয়ারের কারণে বন্যা দেখা দিতে পারে। ওইসব এলাকায় বর্তমানে ৪ কোটি ৮০ লাখের বেশি মানুষ বাস করে। এছাড়া গড়ে ৭ কোটি ৯০ লাখ মানুষের ঘরবাড়ি বাৎসরিক বন্যায় প্রভাবিত হতে পারে।

পরিবেশগত দুর্যোগের কারণে বাস্ত্যুচুত হওয়ার ঘটনা দক্ষিণ এশিয়ায় গুরুতর একটি সমস্যা। অভ্যন্তরীণ বাস্ত্যুচুত পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র বলছে, ২০১৯ সালে বাংলাদেশ, চীন, ভারত এবং ফিলিপাইনে সব দেশের তুলনায় প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে সবচেয়ে বেশি বাস্তুচ্যুতির ঘটনা ঘটেছে। এটি বিশ্বের মোট বাস্ত্যুচুতির ৭০ শতাংশ।

জাগরণ/এসএসকে