• ঢাকা
  • বুধবার, ০১ ডিসেম্বর, ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
প্রকাশিত: অক্টোবর ২১, ২০২১, ১২:৪৫ এএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ২১, ২০২১, ১২:৪৬ এএম

অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলার আবেদন

অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলার আবেদন
ইমেরিটাস প্রফেসর সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে একটি মামলার আবেদন করা হয়েছে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে কটুক্তি করার অভিযোগ এনে মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) নাজিম উদ্দীন সুজন (৫০) নামের এক ব্যক্তি এ আবেদন করেন।

আবেদনে সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী ছাড়াও দৈনিক আজাদীর সহযোগী সম্পাদক রাশেদ রউফ এবং লেখক নেছার আহমেদের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ আনা হয়েছে।

এই তথ্য জানান আবেদনকারীর আইনজীবী শাহিদা নূর।

তিনি জানান, আদালত আবেদনটি শুনানির জন্য রেখেছেন। তবে আবেদনটি গ্রহণ করা হয়েছে কিনা তা জানাতে পারেন নি এই আইনজীবী।

জানতে চাইলে অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী জানান, ‘তিনি বিষয়টি আজই শুনেছেন।’

তিনি বলেন, ‘যে লেখাটি নিয়ে মামলার আবেদন করা হয়েছে তা আমার প্রবন্ধ সংগ্রহের চতুর্থ খণ্ডে আছে। ছাপা হয়েছে ২০০৬ সালে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এভাবে পুরোনো লেখা খুঁজে খুঁজে মামলা করলে তো আর লেখালেখি করা যাবে না। তাহলে তো রবীন্দ্রনাথের বিরুদ্ধেও মামলা করতে হবে।’

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ‘চট্টগ্রাম একাডেমি থেকে ২০২০ সালের ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে ‘জাতির পিতা’ নামে একটি পুস্তক প্রকাশিত হয়। সেখানে অধ্যাপক সিরাজুল ইসলামের প্রবন্ধে বলা হয়, ‘একাত্তরের আগের শেখ মুজিব আর পরের শেখ মুজিব এক নন, বড়ই সত্য কথা।’ আরেক লাইনে লেখা হয়, ‘নৈতিক পতনই তার দৈহিক পতন ডেকে আনে’। চট্টগ্রাম শহরে এমন আরও অনেকে আছে, যারা প্রতিনিয়ত অত্যন্ত সুক্ষ্মভাবে বঙ্গবন্ধু তথা স্বাধীনতার বিরুদ্ধে লেখনির মাধ্যমে নানা অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। একজন বঙ্গবন্ধুর  আদর্শের বিশ্বাসী হিসেবে লজ্জাবোধ থেকে আদালতের আশ্রয় নিয়েছি।’

মামলার বাদি নাজিম উদ্দীন সুজন বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ‘শেখ মুজিবের গোপন শত্রু’ নামে প্রবন্ধে বঙ্গবন্ধুর প্রতি অবমাননার অভিযোগে আদালতে একটি মামলা করা হয়েছে। আদালত আগামী রবিবার (২৪ অক্টোবর) মামলাটি শুনানির জন্য রেখেছেন।

জাগরণ/এমএ