• ঢাকা
  • শনিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
প্রকাশিত: অক্টোবর ২২, ২০২১, ১২:৩৯ এএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ২১, ২০২১, ০৬:৩৯ পিএম

‘পাওনার জন্য ছয় মাস ইভ্যালিকে কোন চাপ নয়’

‘পাওনার জন্য ছয় মাস ইভ্যালিকে কোন চাপ নয়’

বিতর্কিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির গ্রাহকরা আগামী ছয় মাস পাওনা টাকা আদায়ের জন্য বোর্ডকে চাপ দিতে পারবেন না বলে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। 

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) ইভ্যালি পরিচালনার জন্য বোর্ড গঠন সংক্রান্ত লিখিত আদেশে এ কথা বলা হয়েছে। বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চ ১০ পৃষ্ঠার লিখিত আদেশ প্রকাশ করেন।

তবে আদেশে বলা হয়ছ, ‘কোনও গ্রাহক চাইলে পাওনার কথা বোর্ড বা আদালতের কাছে জানাতে পারবেন।’

গত ১৮ অক্টোবর ইভ্যালি পরিচালনার জন্য পাঁচ সদস্যের বোর্ড গঠন করে দেন হাইকোর্ট। বোর্ডের প্রধান করা হয় আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিককে। 

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির ব্যবস্থাপনায় গঠিত বোর্ড কী ধরনের কাজ করবে সে বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বোর্ড শুরুতেই ইভ্যালির অবস্থা সম্পর্কে একটি অডিট করবে। তারপর কোম্পানিটি আদৌ আর পরিচালনা করা সম্ভব নাকি বন্ধ ঘোষণা করা উচিৎ এসব বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে বোর্ড।

যদি কোম্পানিটি পরিচালনা করা সম্ভব হয় তাহলে এই বোর্ড সেটি পরিচালনা করবে। পরিচালনা করা সম্ভব না হলে কোম্পানিটি অবসায়ন করে দেয়া হবে। কোম্পানিটির নিয়মিত যেসব কাজ সেটি এই বোর্ড পরিচালনা করবে, এমনকি বাৎসরিক সভাও।

এক মাস পর আগামী ২৩ নভেম্বর সার্বিক বিষয়ে এ বোর্ড আদালতে অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিল করবে।

বোর্ডের অন্য সদস্যরা হলেন- স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন বিভাগের সাবেক সচিব মোহাম্মদ রেজাউল আহসান, ওএসডিতে থাকা আলোচিত অতিরিক্ত সচিব মাহবুব কবীর মিলন, চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট ফখরুদ্দিন আহম্মেদ, কোম্পানি আইন বিশেষজ্ঞ আইনজীবী ব্যারিস্টার খান মোহাম্মদ শামীম আজিজ।

ইভ্যালি গ্রাহকদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে পণ্য সরবরাহ করছে না- এমন অভিযোগে গত ১৫ সেপ্টেম্বর রাতে আরিফ বাকের নামের এক গ্রাহক গুলশান থানায় মামলা করার পরদিন বিকালে ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) রাসেল ও প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান রাসেলের স্ত্রী শামীমা নাসরিনকে গ্রেফতার করা হয়। বর্তমানে দু’জনই কারাগারে।

জাগরণ/এসএসকে/এমএ