• ঢাকা
  • সোমবার, ২০ মে, ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
প্রকাশিত: অক্টোবর ২০, ২০২২, ১১:৩৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ২১, ২০২২, ০৫:৪৫ এএম

সিত্রাং

সাগরে লঘুচাপ, ঘূর্ণিঝড়ের শঙ্কা

সাগরে লঘুচাপ, ঘূর্ণিঝড়ের শঙ্কা
প্রতীকী ছবি

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি ২৫ অক্টোবর (মঙ্গলবার) নাগাদ ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ে পরিণত হয়ে বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে আঘাত হানতে পারে বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া অধিদপ্তর। 

বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) ভারতের আবহাওয়া অধিদফতর (আইএমডি) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এটি আগামী চারদিনের মধ্যে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। 

শনিবার (২২ অক্টোবর) নাগাদ লঘুচাপটি পশ্চিম-উত্তরপশ্চিমে অগ্রসর হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হবে। পরদিন এটি গভীর নিম্নচাপে রূপ নেবে।

সোমবার (২৪ অক্টোবর) গভীর নিম্নচাপটি আরও উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। ধীরে ধীরে আরও উত্তর-উত্তরপূর্বে সরে গিয়ে সেটি মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে আঘাত হানবে। 

ঘূর্ণিঝড়ের তীব্রতা ও বাতাসের গতি কেমন হবে সে ব্যাপারে এখনও কোনও পূর্বাভাস দেয়নি আইএমডি। 

যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়া পূর্বাভাস মডেল গ্লোবাল ফোরকাস্ট সিস্টেম (জিএফএস) বলছে, এখন পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড়টি খুলনা বিভাগ দিয়েই অতিক্রম করবে বলে আভাস দিচ্ছে। যদি খুলনায় আঘাত হানে তাহলে ‘সিত্রাং’-এর গতিবেগ ঘণ্টায় ১০০ থেকে ১৩০ কিলোমিটার পর্যন্ত উঠতে পারে।

ঘূর্ণিঝড়টি যদি কিছুটা পূর্বদিকে সরে গিয়ে পুরোপুরি খুলনা ও বরিশাল অঞ্চলে আছড়ে পড়ে, সেক্ষেত্রে ঝড়টির গতিবেগ ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে।

 বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে বঙ্গোপসাগরের লঘুচাপটি নিম্নচাপে পরিণত হবে। এর ফলে উপকূলীয় এলাকায় মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে। 

জাগরণ/পরিবেশ/কেএপি