• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১
প্রকাশিত: জুন ২৯, ২০২৩, ০৪:৪৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ২৯, ২০২৩, ০৪:৪৪ পিএম

ঈদের সকালে ঢাকায় ২২ মিমি বৃষ্টি

ঈদের সকালে ঢাকায় ২২ মিমি বৃষ্টি
ছবি ● সংগৃহীত

ঈদের দিন সকাল ৬টা থেকে ৯টা পর্যন্ত ৩ ঘণ্টায় ২২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে রাজধানী ঢাকায়। শুধু ঢাকাই নয়, দেশজুড়ে এখন যে বৃষ্টি চলছে, তা আগামী শনিবার পর্যন্ত চলতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক।

আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্র জানায়, ঢাকায় গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টির পরিমাণ ছিল ১১৫ মিলিমিটার। শুধু রাজধানী নয়, বুধবার থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হচ্ছে। আজও দেশের অনেক স্থানে বৃষ্টির পূর্বাভাস আছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলেছে, রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের হিসাব অনুযায়ী, ২৪ ঘণ্টায় ১১ থেকে ২২ মিলিমিটার বৃষ্টি হলো মাঝারি ধরনের বৃষ্টি। মাঝারি ধরনের ভারী বৃষ্টি বলতে বোঝায় ২৩ থেকে ৪২ মিলিমিটার। ভারী বৃষ্টি হলো ৪৪ থেকে ৮৮ মিলিমিটার। আর বৃষ্টি যদি ৮৮ মিলিমিটারের বেশি হয়, তবে তা অতি ভারী বৃষ্টি হিসেবে গণ্য হয়।

এখনকার বৃষ্টির কারণ হলো মৌসুমি বায়ু। চলতি মাসের ৮ তারিখে এটি বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। সাধারণত ৩১ মে মৌসুমি বায়ু দেশের প্রবেশ করে। এবার তাতে দেরি হয়েছে। তবে ৮ তারিখের পর দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হয়।

এরপর তা কমে গেলেও গত সোমবার থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি শুরু হয়। গত মঙ্গলবার থেকে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়তে থাকে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে প্রবল অবস্থায় রয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর দেশের ৪৪টি স্টেশনের আবহাওয়া পরিস্থিতি তুলে ধরে। সেই চিত্রে দেখা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় পাঁচটি স্টেশন বাদ দিয়ে অন্য জায়গাগুলোয় বৃষ্টি হয়েছে। এর মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয়েছে কুমিল্লায়, ১৫৯ মিলিমিটার। কুমিল্লার পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয়েছে ঢাকায়।

জাগরণ/পরিবেশ/এমএ