• ঢাকা
  • শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১
প্রকাশিত: অক্টোবর ৩, ২০২৩, ১২:৪২ এএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ৩, ২০২৩, ০১:০৭ এএম

উদ্বোধনের জন্য প্রস্তুত তৃতীয় টার্মিনাল

উদ্বোধনের জন্য  প্রস্তুত তৃতীয় টার্মিনাল
ছবি ● সংগৃহীত

উদ্বোধনের জন্য প্রস্তুত হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল। বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জানান, প্রকল্পটির ৮৯ শতাংশ কাজ শেষ।

আগামী ৭ অক্টোবর শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টার্মিনালের আংশিক উদ্বোধন করবেন।

যাত্রীদের জন্য টার্মিনালটি পুরোপুরি প্রস্তুত হবে ২০২৪ সালে। জাতীয় ফুল শাপলার আদলে সেজেছে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল। বলা হচ্ছে সিঙ্গাপুরের চাঙ্গি বিমানবন্দরের আদলেই এটি তৈরি হয়েছে।

দুই লাখ ৩০ হাজার বর্গমিটারের এই টার্মিনালে যাত্রীদের হাটার কষ্ট দূর করবে চলন্ত হাটার পথ। দীর্ঘ লাইনের কষ্ট এড়াতে থাকছে ১১৫টি চেক ইন কাউন্টার ও ৬৪টি ইমিগ্রেশন কাউন্টার। লাগেজ টানার জন্য থাকবে ১৬টি কনভেয়ার বেল্ট। সব মিলে যাত্রীদের বিশ্বের যে কোন আধুনিক বিমানবন্দরের অনুভূতি দিতে প্রস্তুত হচ্ছে তৃতীয় টার্মিনাল। এরিমধ্যে শেষ হয়েছে ৮৯ শতাংশ কাজ।

আগামী ৭ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন এটির আংশিক উদ্বোধন করবেন; তার আগেই শেষ হবে ৯০ শতাংশ।

সোমবার সংবাদ সম্মেলনে বেসামরিক বিমান চলাচল কতৃপক্ষের চেয়ারম্যান এম. মফিদুর রহমান জানালেন, তৃতীয় টামিনালে যাত্রী সেবা বাড়াতে বিদেশি কোম্পানিকে এর পরিচালনার দায়িত্ব দেয়া হবে। এতে যাত্রী সেবার মান বাড়বে।

বিমানবন্দরে লাগেজ ব্যবস্থাপনা, জিনিস পত্র চুরি ও সার্বিক সেবা নিয়ে যাত্রীদের অভিযোগ বন্ধ হবে।

দৃষ্টিনন্দন থার্ড টার্মিনালের সাজসজ্জা দেখাতে আগামী ৭ অক্টোবর টার্মিনালের ভেতরেই হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। প্রধানমন্ত্রী ও নির্দিষ্ট সংখ্যক অতিথি যোগ দেবেন এই অনুষ্ঠানে।

বর্তমানে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বছরে প্রায় ৮০ লাখ যাত্রী আসা যাওয়া করে। নতুন টার্মিনাল উদ্বোধনের পর দ্বিগুন যাত্রী চলাচল করতে পারবেন। প্রকল্পটি ব্যায় হচ্ছে প্রায় ২২ হাজার কোটি টাকা।

জাগরণ/যোগাযোগ/বিমানবন্দরেরতৃতীয়টার্মিনাল/এসএসকে