• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৪, ১১:২২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৪, ১১:২৩ পিএম

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসন

প্রথম দিন আ’লীগের ফরম নিলেন ৮১০ জন

প্রথম দিন আ’লীগের ফরম নিলেন ৮১০ জন
ছবি ● সংগৃহীত

দ্বাদশ সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচনের জন্য মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু করেছে ক্ষমতাশীন দল আওয়ামী লীগ।

মঙ্গলবার মনোনয়ন বিতরণ শুরুর প্রথম দিনই ফরম তুলেছেন ৮১০ জন। মনোনয়ন বিতরণ চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। 

আওয়ামী লীগের দপ্তর জানিয়েছে, প্রথম দিন মনোনয়ন সংগ্রহকারীদের মধ্যে আছেন রাজনীতিবীদ, পেশাজীবী, আইনজীবী, অভিনেত্রী, শিল্পীসহ অনেকে। 

প্রথম দিন সবচেয়ে বেশি ফরম সংগ্রহ করা হয়েছে ঢাকা বিভাগ থেকে ২৭৫টি। সবচেয়ে কম ফরম সংগ্রহ করা হয়েছে সিলেট বিভাগ থেকে ২৬টি। এ ছাড়া চট্টগ্রাম থেকে ১৪৯, রংপুর থেকে ৭৫, বরিশাল থেকে ৫৬, খুলনা থেকে ৭৭, রাজশাহী থেকে ৯০ এবং ময়মনসিংহ থেকে ফরম তুলেছেন ৬২ জন। 

এবার প্রত্যেকটি ফরমের দাম রাখা হয়েছে ৫০ হাজার টাকা। প্রথম দিন ফরম বিতরণ করে আওয়ামী লীগ আয় করেছে ৪ কোটি ৫ লাখ টাকা। 

মনোনয়ন প্রত্যাশীদের আশা দলের জন্য বিভিন্ন সময় অবদান রেখেছেন—এমন নারীদেরই এবার মনোনয়ন দেবে আওয়ামী লীগ।

প্রথম দিন দলীয় মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করা ফরিদপুর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহমুদা বেগম ইনডিপেনডেন্ট ডিজিটালকে বলেন, ‘আমি যখন সক্রিয় ছাত্র রাজনীতি করেছি, তখন দল ক্ষমতায় ছিল না। এর পর বঙ্গবন্ধুর আদর্শে পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃত্ব দিয়েছি।’ 

রাজপথের এই রাজনীতিবীদ বলেন, ‘সামনের দিনে আন্দোলন–সংগ্রামে যারা অবদান রাখতে পারবে আমি আশা করি, এমন যোগ্যদেরই এবার দল মনোনয়ন দেবে। যারা দলের জন্য ডেডিকেটেড, তাদের মনোনয়ন দেওয়া উচিত বলে আমি মনে করি।’ 

সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য হতে মনোনয়নপত্র তুলেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশন দলের সাবেক সদস্য ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ। তিনি জানান, ২০১৮ সালের পর থেকেই তৃণমূলের রাজনীতিতে তিনি সক্রিয় ভূমিকা পালন করছেন। 

তুরিন ইনডিপেনডেন্ট ডিজিটালকে বলেন, ‘আমি মনে করি, এবারের মনোনয়নের ক্ষেত্রে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা কিছু চমক নিয়ে আসবেন। দীর্ঘদিন রাজনীতিতে অবদান রাখছেন—এমন বহু নারী রাজনীতিবীদ আছেন। আমার মনে হয় এর একটা প্রতিফল এবার দেখা যাবে। এ ছাড়া বিভিন্ন  ক্ষেত্রে অবদান রাখছেন কেউ চিকিৎসক, কেউ উদ্যোক্তা বা অন্য কোনো পেশাজীবী যারা আছেন, তাঁরাও আসতে পারেন। আমার মনে হয় এ ধরনের একটি কম্বিনেশন আমরা দেখব।’

নিজের মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে তুরিন আফরোজ বলেন, ‘আমি মনোনয়ন পাব কিনা, এটা নির্ভর করছে দল ও নেত্রীর ওপর। আমার মেধা দল কাজে লাগাতে চায় কিনা, সেটার ওপর নির্ভর করছে। সংসদের কাজ আইন প্রণোয়নে ভূমিকা পালন। সে ক্ষেত্রে আমি নিজেও আইন নিয়ে পড়াশোনা করেছি, এখনো কাজ করছি। আইন প্রণোয়নে আমি ভূমিকা রাখতে পারব। তবে এটা সম্পূর্ণ নির্ভর করছে দল ও নেত্রীর ওপর। আমাকে যদি মনোনয়ন দেওয়া হয়, তাহলে আমি বলব আমি প্রস্তুত আছি।’

সংস্কৃতি কর্মী ও অভিনেত্রী শামীমা তুষ্টিও আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। মুক্তিযোদ্ধা পিতার এ সন্তান জানান, দীর্ঘদিন ধরেই সামাজিক নানা কর্মকাণ্ডের সঙ্গে তিনি যুক্ত। পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছড়িয়ে দিতেও কাজ করছেন তিনি। এবার বড় পরিসরে কাজ করতে চান এ অভিনেত্রী।

তুষ্টি বলেন, ‘বড় পরিসরে কাজ করতে গেলে বড় চিন্তা করতে হবে। এ জন্যই আমি মনোনয়ন চেয়েছি। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল বাংলাদেশকে স্মার্ট বাংলাদেশে পরিণত করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছেন। আমি সেই লক্ষ্য বাস্তবায়নে কাজ করতে চাই। আওয়ামী লীগ সরকার শিল্পীবান্ধব সরকার, আমি শিল্পীদের নিয়ে, শিল্পীদের জন্য কাজ করতে চাই। আশা করি, আওয়ামী লীগ আমাকে মনোনয়ন দেবে।’

এবার সংরক্ষিত নারী আসনে জায়গা পেতে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বিনোদন অঙ্গনের বেশ কয়েকজন তারকা। এদের মধ্যে আছেন নিপুণ আক্তার, মেহের আফরোজ শাওন, সোহানা সাবা, অপু বিশ্বাস, শাহানূর ও ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর।

মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করতে এসে অভিনেত্রী সোহানা সাবা বলেন, ‘আমার বাবা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। বাবার আদর্শে আমিও আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী হতে চাই।’

সাবা আগে সরাসরি রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন না। তবে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

চলচ্চিত্র অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস জানান, সংসদ সদস্য হলে নারীদের নিয়ে কাজ করতে চান তিনি। অপু বলেন, ‘মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। সেই ২০১৭ সাল থেকে মানুষের জন্য, দলের জন্য কাজ করছি। এখন অবধি আছি। আমি মনে করি, মানুষের জন্য কাজ করার জন্য আমি যোগ্য মানুষ। সবাই জানেন, আমি মনে-প্রাণে আওয়ামী লীগ ধারণ করি। সে কারণেই সংরক্ষিত আসনের মনোনয়ন চাই। আমার বিশ্বাস, এই দায়িত্ব পালন করার মতো যোগ্যতা আমার আছে।’

জাগরণ/দ্বাদশ সংসদসংরক্ষিতনারীনির্বাচন/এসএসকে