• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ৪ মাঘ ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৭, ২০১৯, ০৩:৫৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ৭, ২০১৯, ০৩:৫৬ পিএম

আ’লীগকে পেছনের দিকে তাকাতে বললেন ফখরুল

জাগরণ প্রতিবেদক
আ’লীগকে পেছনের দিকে তাকাতে বললেন ফখরুল
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর -ফাইল ছবি

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সুপ্রীম কোর্টের আপিল বিভাগে খালেদা জিয়ার জামিন শুনানীর পর মন্ত্রিসভার সদস্যরা এমন বক্তব্য দিচ্ছেন, যেন আইনজীবীরা নেত্রীর মুক্তির জন্য দাঁড়িয়ে মহাঅপরাধ করে ফেলেছেন। এসব কথা বলার আগে তাদের নিজেদের পেছন দিকে তাকানো উচিৎ? তারা অতীতে কি করেছিলেন?

শনিবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমাদের আইনজীবীরাতো খারাপ কাজ করেননি। তারা নিজেদের জায়গায় বসে থেকে দাবির কথা বলেছেন, ন্যায় বিচার চেয়েছেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ ২০০৬ সালের ৩০ নভেম্বর আদালতে লাঠি মিছিল করেছেন। তখনকার আইন প্রতিমন্ত্রী শাহজাহান ওমর বীর উত্তমের গাড়ি পুড়িয়ে দিয়েছিল আদালত চত্বরে। তখন শুনানী স্থগিত হয়েছে। প্রধান বিচারপতির কক্ষ ভাঙচুর করা হয়েছে। এ ঘটনায় যাদের ছবি এসেছে তারা পরবর্তীকালে অনেকে বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। এখনও বিচারপতি আছেন।

একটি ছবি দেখিয়ে ফখরুল বলেন, ওই দিন আওয়ামী আইনজীবীদের তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড প্রধান বিচারপতির এজলাস বন্ধ ছিল। ৩ দিন বিচারপতিরা কোর্টে আসেননি। এখন কি হুমকী দিচ্ছেন? আইনজীবীদের হট্টগোল ক্ষমার অযোগ্য। তাহলে আপনাদের ওই সমস্ত তাণ্ডব ক্ষমা পেলো কি করে?

দেশে আইনের শাসন নেই দাবি করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার জামিন নিয়ে তারা যে জঘন্য একটা নাটক করছেন তা বাদ দিয়ে দয়া করে একজন দেশপ্রেমিক নেতাকে জামিনে মুক্ত করুন। তাকে বেঁচে থাকার জন্য চিকিৎসা নেয়ার সুযোগ করে দেন। অন্যথায় এদেশের মানুষ কোনো দিনই আপনাদের ক্ষমা করবে না।

সরকারের উদ্দেশে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ভয় দেখিয়ে আর লাভ হবে না। দেশের মানুষ জেগে উঠতে শুরু করেছে। আন্দোলনের মধ্যে দিয়েই সংগ্রামের মধ্যে দিয়েই তারা তাদের অধিকার আদায় করে নেবে।  

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মজিবর রহমান সরোয়ার, হাবিব উন নবী খান সোহেল, বিএনপি নেতা মীর সরাফত আলী সপু, রফিকুল ইসলাম মাহতাব, আব্দুস সালাম আজাদ, সুলতানা আহমেদ, শাহ মোহাম্মদ নেছারুল হক, হেলেন জেরিন খান প্রমুখ।

টিএস/একেএস

আরও পড়ুন