• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই, ২০২০, ১ শ্রাবণ ১৪২৭
প্রকাশিত: এপ্রিল ২২, ২০২০, ০৮:১৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২২, ২০২০, ০৮:১৯ পিএম

‘আসুন জনগণকে সুরক্ষা দেবার রাজনীতিটাই করি’

জাগরণ প্রতিবেদক
‘আসুন জনগণকে সুরক্ষা দেবার রাজনীতিটাই করি’
গণমাধ্যমের সাথে কখা বলছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ ● জাগরণ

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বিএনপিসহ সব রাজনৈতিক দলের আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, আসুন অন্য রাজনীতি নয়, আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে জনগণকে সুরক্ষা দেবার রাজনীতিটাই করি।

বুধবার (২২ এপ্রিল) সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে তিনি এই আহ্বান জানান।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, এখন রাজনীতি করার সময় নয়, একে অপরকে দোষারোপ করার সময় নয়, এখন সময় হচ্ছে সব রাজনৈতিক দল মিলে সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে এ মহাদুর্যোগ মোকাবেলা করা।

করোনার বিশ্বপরিমাপক বা ওয়ার্ল্ডোমিটার থেকে এ সময় দেশের তুলনামূলক পরিসংখ্যান উদ্ধৃত করে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা শনাক্তের পর দুঃখজনকভাবে এ পর্যন্ত ১২০ জনের প্রাণহানি ও ৩ হাজার ৭৭২ জন শনাক্ত হয়েছে, আমরা মৃতের আত্মার শান্তি ও আক্রান্তদের আরোগ্য কামনা করি। আর কাছাকাছি সময়, ১১ মার্চ তুরস্কে প্রথম করোনা শনাক্তের পর এ পর্যন্ত ২ হাজার ২৫৯ জন মৃত্যুবরণ করেছে ও ৯৫ হাজার ৫৯১ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। অর্থাৎ আমাদের পরিস্থিতি এখনও অনেক দেশের চেয়ে ভালো। কিন্তু সেটি যেন আরও খারাপের দিকে না যায়, সেজন্য সরকারের পাশাপাশি সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

দেশে করোনার পূর্বপ্রস্তুতি সম্পর্কে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিশ্বে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়ার সাথে সাথেই এমনকি বাংলাদেশে করোনারোগী শনাক্ত হবার আগে থেকেই আওয়ামী লীগ সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আওয়ামী লীগ জনগণকে সুরক্ষা দেবার জন্য সরকারের পাশাপাশি কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের ত্রাণ উপকমিটি শুরু থেকেই ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করে আসছে এবং একেবারে উপজেলা পর্যায় ও ছোটো ছোটো পৌরসভা পর্যন্ত ত্রাণসামগ্রী পৌঁছানো হয়েছে। এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটির পক্ষ থেকে দেয়া করোনা প্রতিরোধসামগ্রী চট্টগ্রাম জার্নালিস্ট ফোরাম, ঢাকা সভাপতি শাহেদ সিদ্দিকী ও সাধারণ সম্পাদক মুজিব মাসুদের হাতে তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী। এ সময় দলের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া ও ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী উপস্থিত ছিলেন।

এএইচএস/এসএমএম

আরও পড়ুন