• ঢাকা
  • বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: অক্টোবর ১৭, ২০২০, ১১:২৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ১৭, ২০২০, ১১:২৬ এএম

আফসোস সালাহউদ্দিনের 

মনু ভোটার না হয়েও ভোট দিয়েছেন

জাগরণ ডেস্ক
মনু ভোটার না হয়েও ভোট দিয়েছেন

হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে শূন্য হওয়া ঢাকা-৫ আসনে উপনির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তবে এ আসনের ভোটার না হওয়ায় তিনি আফসোস প্রকাশ করেছেন।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) সকাল পৌনে দশটায় যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপ করে তার ভোটার না হওয়ার বিষয়টি জানান সালাহউদ্দিন। 

তিনি বলেন, ২০০৮ সালে আমি এই আসনের ভোটার ছিলাম। পরে ২০১৮ সালে আমাদের দল যখন নির্বাচনে অংশ নেয়, তখন ঢাকা-৪ আসলে আমি ভোটার হই। পরবর্তীতে আবার এই আসনের জন্য আবেদন করলেও নির্বাচন কমিশন এবং সরকারের কারণে আমি ভোটার হতে পারিনি।

এ সময় সালাহউদ্দিন আহমেদ অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী কাজী মনিরুল ইসলাম মনু যাত্রাবাড়ী এলাকার ভোটার না হয়েও কি ভাবে সে ভোট দিল সেটা আমার বোধগম্য নয়। কাজী মনু এখানে ভোট দিয়েছে সারা দেশের মানুষকে সে একথা বলেছেন, আপনারা কি দেখেছেন সে ভোট দিয়েছে।  আওয়ামী লীগের প্রার্থী মিথ্যা কথা বলেছে সে গেন্ডারিয়ার ভোটার।

এ সময় বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে পোলিং এজেন্টদের বের করে দেয়ার অভিযোগ করে বিএনপি প্রার্থী জানান, ৫০নং ওয়ার্ডের ৯ নম্বর কেন্দ্র যাত্রাবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিএনপির এজেন্টরা গেলে তাদের স্কুল প্রাঙ্গণ থেকে জোর দিয়ে বের করে দেয়া হয়।

এছাড়াও ৬৮নং ওয়ার্ডের হাজী আদর্শ মোয়াজ্জেম আলী হাই স্কুল, সানারপাড় রুস্তম আলী হাইস্কুল ও ফুলকলি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ৬৬নং ওয়ার্ডের ভ্যামুইল আইডিয়াল স্কুল, সারুলিয়া ডগাইর দারুস সুন্নত ফাজিল ফাদ্রাসা,৭০নং ওয়ার্ডে ১৮৫নং কেন্দ্র (আমুলিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়), দেল্লা ও ৬৬নং ওয়ার্ডের ১৪৮ ও ১৪৯ কেন্দ্র থেকে বিএনপির সব পোলিং এজেন্টদের পুলিশের সামনেই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বের করে দিয়েছে।

জাগরণ/এমআর