• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৭ মে, ২০২২, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২৮, ২০২১, ১২:৪১ এএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ২৭, ২০২১, ০৬:৪১ পিএম

ইসি গঠনে রাষ্ট্রপতির সংলাপ

মুক্তিযুদ্ধ বিরোধীদের ইসিতে না রাখার পরামর্শ তরিকতের

মুক্তিযুদ্ধ বিরোধীদের ইসিতে না রাখার পরামর্শ তরিকতের
সংগৃহীত ছবি

একটি স্বাধীন, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন কমিশন গঠনে মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতাকারী বা তার পরিবারবর্গের কাউকে না রাখার প্রস্তাব সহ চার দফা প্রস্তাবনা দিয়েছে বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন। 

সোমবার (২৭ ডিসেম্বর) বিকাল চারটায় বঙ্গভবনে অনুষ্ঠিত এক সংলাপে রাষ্ট্রপতির কাছে এই দাবি জানান তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী নেতৃত্বাধীন সংগঠনটি।

সংলাপে নেতৃবৃন্দ স্বাধীন, কার্যকরী ও গ্রহণযোগ্য ইসি গঠনে রাষ্ট্রপতির কাছে চার দফা দাবি পেশ করেন।

তরিকত নেতারা বলেন, নির্বাচন কমিশন বাংলাদেশ সংবিধানের ১১৮ (১) এ নির্বাচন কমিশন আইনের কথা উল্লেখ থাকলেও বিগত কোন সরকারই আইন প্রণয়নের উদ্যোগ গ্রহণ করেননি। বর্তমান প্রেক্ষাপটে  নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য একটি সময়োপযোগী আইন প্রণয়ন করা দরকার।

তরিকত চেয়ারম্যান অনুসন্ধান (সার্চ) কমিটি গঠনের ব্যাপারেও মত দেন। তবে বিষয়টি গ্রহণযোগ্য ও বিতরকের ঊর্ধ্বে থাকার জন্য রাজনৈতিক দল ছাড়াও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় বা সংলাপের আহ্বান জানান। 

মাইজভাণ্ডারী প্রস্তাবিত অনুসন্ধান কমিটিতে গণমাধ্যমের একজন প্রতিনিধিসহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদেরকে অন্তর্ভুক্ত করার ও প্রস্তাব দেন। নির্বাচন কমিশনে যাতে মুক্তিযুদ্ধে বিরোধিতাকারী বা তাদের পরিবারবর্গের কাউকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নিয়োগ দেয়া না হয় সে দাবি জানান তিনি। 

পর্যায়ক্রমে রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে আলোচনার ভিত্তিতে একটি দক্ষ, শক্তিশালী ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন কমিশন গঠন করা সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করেন রাষ্ট্রপতি। তিনি দেশের ইসি গঠনে সকল রাজনৈতিক দলগুলোর সার্বিক সহযোগিতাও কামনা করেন।

জাগরণ/এসএসকে