• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ আগস্ট, ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: জুন ৮, ২০১৯, ০৪:৫৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ৮, ২০১৯, ০৫:১৫ পিএম

হুয়াওয়ে ফোনে প্রিইনস্টল স্থগিত করল ফেসবুক!

জাগরণ প্রতিবেদক
হুয়াওয়ে ফোনে প্রিইনস্টল স্থগিত করল ফেসবুক!

ফেসবুক ইনকর্পোরেটেড তার অ্যাপ্লিকেশনগুলির প্রিইনস্টলেশনের অনুমতি দিচ্ছে না হুয়াওয়েকে। বর্তমানে চীনা প্রযুক্তি তার জায়ান্টের শেষ সম্বল হিসেবে একমাত্র ঘাঁটি। কারণ, ট্রাম্প প্রশাসন গত ১৫ মে হুয়াওয়েকে কালো তালিকাভুক্ত করার পর থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে তাদের ব্যবসা চালিয়ে যাওয়ার জন্য সংগ্রাম করেছে।

ফেসবুক রয়টার্সের এক প্রতিবেদন উল্লেখ করে বলে, ইতোমধ্যে হুয়াওয়ে ফোন ব্যবহারকারী গ্রাহকরা এখন তাদের অ্যাপ্লিকেশনগুলি ব্যবহার এবং আপডেটগুলি পেতে সক্ষম হবে। তবে নতুন হুয়াওয়ে ফোনগুলিতে আর ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ এবং ইনস্টাগ্রাম অ্যাপ্লিকেশনগুলি পূর্বে ইনস্টল করতে পারবে না। স্মার্টফোন বিক্রেতারা প্রায়ই ফেসবুকের মতো জনপ্রিয় অ্যাপ্লিকেশনগুলি প্রিইনস্টল করার জন্য ব্যবসায়িক চুক্তি করে থাকে। টুইটার এবং বুকিং ডটকমসহ অ্যাপ্লিকেশনগুলি হুয়াওয়ে ফোনে প্রিইনস্টল করা হয়। তবে টুইটার এসব মন্তব্য করতে অস্বীকার করে এবং তারা তাদের অনুরোধেও সাড়া দেয় না।

তবে ফেসবুকের এই পদক্ষেপটি হুয়াওয়ের টেকনোলজিস কোম্পানি লিমিটেডের বিক্রিকে কমিয়ে দেয় এবং তাদের বিস্মিত করে। স্মার্টফোন ব্যবসাটি গত বছর তার বৃহত্তম রাজস্ব জেনারেটর হয়ে ওঠে, যা ইউরোপ ও এশিয়ার শক্তিশালী প্রবৃদ্ধির দ্বারা পরিচালিত।

গুগল আলফাবেট ইনকর্পোরেটেডকে বলেছিল, এটি ইউএস সরকার কর্তৃক আগস্ট থেকে ৯০ দিনের মধ্যে রিপ্রেজী প্রদানের পর হুয়াওয়ে ফোনগুলির জন্য আর অ্যান্ড্রয়েড সফ্টওয়্যার তারা সরবরাহ করবে না। তবে গুগল প্লেস্টোর এবং গুগলের সমস্ত অ্যাপস এখনও হুয়াওয়ে ফোনগুলির বর্তমান মডেলের জন্য উপলব্ধ থাকবে, এমন কোন পণ্য বা প্রেরণ তৈরি করা হয়নি। তবে ফেসবুক নিষেধাজ্ঞার বিপরীতে যে কোনো হুয়াওয়ে ফোনের ক্ষেত্রে এটা প্রযোজ্য, যেগুলো ফোন কারখানার বাইরে চলে গেছে। ট্রাম্প প্রশাসন গত ১৫ মে  ‘কালো তালিকাভুক্ত’  করায় হুয়াওয়ে কোম্পানির বিরুদ্ধে ওয়াশিংটনে মার্কিন কোম্পানিগুলিকে প্রযুক্তি সরবরাহ নিষিদ্ধ করেছিল। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র অভিযোগ করেছে যে, চীনা সরকারের কাছে ঘনিষ্ঠ এবং তার টেলিকম নেটওয়ার্ক গিয়ার এবং অন্য পণ্যগুলি গুপ্তচরবৃত্তি করার জন্য একটি কন্ডুয়েট হতে পারে, যা হুয়াওয়ে কোম্পানি অস্বীকার করে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক অনলাইন প্রতিবেদনে বলা হয়, বর্তমান হুয়াওয়ে ফোন ব্যবহারকারী বা ক্রেতারা, যাদের পূর্ব-ইনস্টল করা ফেসবুক নেই- তারা এখনও গুগল প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করতে সক্ষম হবেন। তবে হুয়াওয়ে ফোনের ভবিষ্যৎ সংস্করণ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সরকার অবশ্য পরিবর্তন না করলে গুগল প্লেস্টোরের অ্যাপগুলিতে আক্সেস পাবে না।  

হুয়াওয়ে কোম্পানি বলেন, এটি মার্কিন কর্মকাণ্ড কোনো ক্ষতিগ্রস্ত হবে না এবং যে বিষয়ে তারা অঙ্গীকারবদ্ধ ছিল। কিন্তু ইউরোপ ও এশিয়ার কয়েক গ্রাহক রয়টার্স প্রতিবেদককে বলেন, অনিশ্চয়তার মুখে তারা হুয়াওয়ে ফোনগুলি কিনতে অনিচ্ছুক এবং বিশ্লেষকরা হুয়াওয়ে স্মার্টফোন বি্ক্রিতে পতন আশা করে। 
 
সুত্র : রয়টার্স 
 

আরও পড়ুন

Islami Bank