• ঢাকা
  • শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: নভেম্বর ৯, ২০১৯, ১০:৫৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ৯, ২০১৯, ১০:৫৬ এএম

পর্ন তারকা থেকে ক্রিকেট আম্পায়ার স্টিরাট! 

ক্রীড়া ডেস্ক
পর্ন তারকা থেকে ক্রিকেট আম্পায়ার স্টিরাট! 
আম্পায়ার গার্থ স্টিরাট এক সময় ছিলেন পর্ণ তারকা । ফটো : মিরর ইউকে

গত মঙ্গলবার নেসসনে অনুষ্ঠিত পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১৮১ রানের লক্ষ্যএ ব্যাট করতে নামা ইংল্যান্ডের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ৩১ বলে ৪২ রান, হাতে ছিল ৮ উইকেট। অথচ বাকি ব্যাটসম্যানদের অবিশ্বাস্য ব্যাটিং ব্যর্থতার খেসারত দিয়ে তারা উল্টো ১৪ রানে হেরে বসে। 

২ উইকেটে ১৩৯ থেকে সফরকারীদের স্কোর এক পর্যায়ে হয়ে যায় ৭ উইকেটে ১৪৯ রান! অর্থাৎ মাত্র ১০ রানের মধ্যেই তাদের ৫ উইকেট একদম হাওয়া হয়ে যায়! শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে ১৬৬ রানেই থামে ইংল্যান্ডের ইনিংস। 

সেই ম্যাচে নিজেদের চোকার বলেই প্রমাণ করে বেশ আলোচিত হয়েছিল ক্রিকেটের জনক ইংল্যান্ড। তবে ওই ম্যাচে যে আরেকটি আলোড়ন সৃষ্টি করা ঘটনা ঘটে গেছে, তা আরও পরে জানা গেছে।  

আলোচিত ম্যাচটিতে ফিল্ড আম্পায়ার ছিলেন ক্রিস ব্রাউন ও ওয়েনি নাইটস। টিভি আম্পায়ার ছিলেন শন হেইগ। রিজার্ভ বা চতুর্থ আম্পায়ার ছিলেন গার্থ স্টিরাট, যিনি এর আগে নারীদের বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক ম্যাচে ফিল্ড আম্পায়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

ফিল্ড বা টিভি আম্পায়ার না হয়েও রিজার্ভ আম্পায়ার গার্থ স্টিরাটই হলেন আলোচনার জন্ম দেয়া সেই ব্যক্তি। কারণ ইংল্যান্ডের দ্য সান পত্রিকা তাদের প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ৫১ বছর বয়সী গার্থ স্টিরাট নাকি এক সময় পর্ণ তারকা ছিলেন! 

আম্পায়ারিং পেশায় আসার আগে স্টিরাট নিউজিল্যান্ডের পেশাদার গলফারদের সংস্থায় ১০ বছর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এই পেশায় থাকাকালীন অবস্থায়তেই তিনি গোপনে পর্নগ্রাফিতে কাজ করেছিলেন। অবশ্য নিজের প্রকৃত নাম ব্যবহার না করায় তাকে পর্নগ্রাফির জগতে কেউ গার্থ স্টিরাট নামে চিনতেন না। তিনি এই জগতে ‘স্টিভ পার্নেল’ নামে পরিচিত ছিলেন। 

শেষ পর্যন্ত তার অপকর্ম গোপন থাকেনি। একসময় নিউজিল্যান্ডের একটি অ্যাডাল্ট ম্যাগাজিনে তার বেশকিছু আপত্তিকর ছবি প্রকাশিত হয়। ম্যাগাজিনে তার ছবি প্রকাশিত হওয়ার পর গলফ অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান নির্বাহীর চাকরি থেকে স্টিরাট বরখাস্ত হন।

আরআইএস 
 

আরও পড়ুন