• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২২, ২০২০, ১১:২৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২২, ২০২০, ১১:২৭ এএম

বদলি অ্যাগুয়েরোর গোলে ম্যানসিটির কষ্টার্জিত জয়

ক্রীড়া ডেস্ক
বদলি অ্যাগুয়েরোর গোলে ম্যানসিটির কষ্টার্জিত জয়
ডান পায়ের টোকায় বল জালে পাঠিয়ে ম্যাচের একমাত্র গোলটি করেন সার্জিও অ্যাগুয়েরো। ফটো : টুইটার

ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে গ্যাব্রিয়েল জেসুসের পেনাল্টি মিসে জয় হাতছাড়া করতে বসেছিল ম্যানচেস্টার সিটি। তবে জেসুসের বলদি হিসেবে নামা সার্জিও অ্যাগুয়েরোর লক্ষ্যভেদে শেষ পর্যন্ত শেফিল্ড ইউনাইটেডকে ১-০ গোলে হারিয়েছে পেপ গার্দিওলার দল।

মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) রাতে শেফিল্ডের মাঠে অনুষ্ঠিত ম্যাচে একাদশে ৭টি পরিবর্তন আনেন গার্দিওলা। গোলরক্ষক এডারসন, ফের্নানদিনহো, কেভিন ডি ব্রুইন ও রাহিম স্টার্লিং শুধু জায়গা ধরে রাখেন। 

ম্যাচের শুরু থেকে আক্রমণে এগিয়ে ছিল ম্যানসিটি। মাহরেজ-হেসুস-স্টার্লিং ত্রয়ীর একের পর এক আক্রমণে প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগকে কাঁপিয়ে দিচ্ছিল তারা। কিন্তু শেফিল্ড গোলরক্ষক ডিন হেন্ডারসন ছিলেন দুর্দান্ত ফর্মে। দুর্দান্ত সব সেভে শুধু প্রথমার্ধেই সিটির অন্তত ৩টি নিশ্চিত গোল ফিরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। 

৩৬ মিনিটে মাহরেজকে ডি বক্সে ফেলে দিয়ে সিটিকে পেনাল্টি উপহার দেন ক্রিস ব্যাশাম। অ্যাগুয়েরোর অনুপস্থিতিতে পেনাল্টি নিতে আসা জেসুসের শট ডান দিকে ঝাঁপিয়ে রুখে দেন শেফিল্ড গোলরক্ষক। 

বিরতির পর আক্রমণে ধার বাড়ায় অতিথিরা। ৬৭ মিনিটে জেসুসের বদলি হিসেবে অ্যাগুয়েরোকে মাঠে নামানো হয়। কোচের আস্থার প্রতিদান দিতে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড ৬ মিনিটের বেশি সময় নেননি। কেভিন ডি ব্রুইনের ক্রসে বল পেয়ে ডি বক্সের ভেতর থেকে ডান পায়ের টোকায় বল জালে পাঠিয়ে ম্যাচের একমাত্র গোলটি করেন অ্যাগুয়েরো। 

এই ম্যাচে ম্যানসিটির জার্সিতে নিজের ২৫৩তম গোল করলেন অ্যাগুয়েরো। শেষ তিন ম্যাচে করলেন ৬ গোল। অ্যাস্টন ভিলার মাঠে হ্যাটট্রিকের পর ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে করেছিলেন দুই গোল।

গোলে ভূমিকা রেখে দারুণ এক কীর্তি গড়েছেন কেভিন ডি ব্রুইন। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে তিনি ৩টি ভিন্ন মৌসুমে সতীর্থদের ১৫টির বেশি গোলে অবদান রাখলেন।

শেফিল্ডকে হারিয়ে ২৪ ম্যাচে ৫১ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দুইয়ে অবস্থান করছে ম্যানচেস্টার সিটি। দুই ম্যাচ কম খেলা লিভারপুল ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে আছে শীর্ষে। ৬ পয়েন্ট কম নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে ২৩ ম্যাচ খেলা লেস্টার সিটি। ২৪ ম্যাচে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে চেলসি। ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

আরআইএস 

আরও পড়ুন