• ঢাকা
  • বুধবার, ০৮ এপ্রিল, ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০, ১০:০০ এএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০, ০৪:৪৪ পিএম

সেঞ্চুরিয়ান আরভিনকে ফিরিয়ে ফাইফারের অপেক্ষায় নাইম

ক্রীড়া ডেস্ক
সেঞ্চুরিয়ান আরভিনকে ফিরিয়ে ফাইফারের অপেক্ষায় নাইম

নাইমকে ফেরালেন আরভিনকে

একদিনেই ৩৬ ওভার বল করেছেন নাইম হাসান। সাফল্যেও পেয়েছেন তিনি। নিজের চতুর্থ শিকার হিসেবে সাজঘরে ফেরত পাঠিয়েছেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিনকে। তার আগে ১৩ চারে ২২৭ বলে ১০৭ রান করেছেন এই ব্যাটসম্যান। 

রাহীর দ্বিতীয় শিকার

একেবারে প্রথম উইকেটটা নিয়েছিলেন আবু জায়েদ রাহী। এরপর জিম্বাবুয়ের তিন ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়েছিলেন নাইম হাসান। ফের জিম্বাবুয়ে শিবিরে আঘাত হেনেছেন রাহী। তুলে নিয়েছেন তিমিচান মারুমার উইকেট। তাকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন রাহী। ১৯৯ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়েছে সফরকারীরা

নাইমের তৃতীয় শিকার রাজা

প্রথম উইকেটটা নিয়েছিলেন আবু জায়েদ রাহী। এরপর থেকেই শুরু নাইম হাসানের স্পিন ঘূর্ণি। ১৬ রানের ব্যবধানে জিম্বাবুয়ের দুই ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে ফেরানোর পর এবার আউট করেছেন সিকান্দার রাজাকে। নাইমের তৃতীয় শিকার হয়ে লিটন দাসের হাতে ক্যাচ দিয়ে ১৮ রান করে সাজঘরে ফেরত গেছেন তিনি। ১৭৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে জিম্বাবুয়ে। 

১৬ রানের ব্যবধানে দুই উইকেট হারালো জিম্বাবুয়ে

৭ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারানোর পর ক্রিজে যেন আঠা লাগিয়ে বসেছিলেন দুই জিম্বাবুইয়ান ব্যাটসম্যান প্রিন্স মাসভরে ও ক্রেইগ আরভিন। দুইজন মিলে গড়েছিলেন ১০১ রানের জুটি। অবশেষে তা ভেঙেছেন নাইম হাসান। নিজের বলে নিজেই ক্যাচ ধরে মাসভরেকে ফিরিয়েছেন ৬৪ রানে। তার আউটের পর ক্রিজে আসা ব্রেন্ডর টেইলরকেও দলীয় ১৩৪ রানের মাথায় বোল্ড করে সাজঘরে ফিরিয়েছেন তরুন এই অফস্পিনার। 

প্রথম সেশনে মাত্র এক উইকেট নিতে পেরেছে বাংলাদেশ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টের প্রথম দিনের প্রথম সেশনে ৩০ ওভারে ১ উইকেটে ৮০ রান করেছে জিম্বাবুয়ে। প্রিন্স মাসভাউরে ৪৫ ও ক্রেইগ আরভিন ২৬ অপরাজিত আছেন। বাংলাদেশের পক্ষে একমাত্র উইকেটটি নিয়েছেন আবু জায়েদ চৌধুরী রাহি। কেভিন কাসুজাকে মাত্র দুই রানে ফিরিয়েছেন তিনি। 

শুরুতে নিয়ন্ত্রিত বোলিং 

শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টায় খেলা শুরু হয়। নিয়ন্ত্রিত বোলিং দিয়ে শুরু করেছে বাংলাদেশ। প্রথম ৬ ওভারে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ ছিল মাত্র ১ রান। ৭ম ওভারের প্রথম বাউন্ডারির দেখা পায় জিম্বাবুয়ে।

টি টোয়েন্টি, ওয়ানডে এবং টেস্ট-  তিন সংস্করণ মিলিয়ে এটি দুই দলের মধ্যে শততম আন্তর্জাতিক ম্যাচ।

টিশুমার অভিষেক

জিম্বাবুয়ের হয়ে টেস্ট অভিষেক হচ্ছে পেসার চার্ল্টন টিশুমা। একাদশে ফিরেছেন আইন্সলে এনডিলোভু।

জিম্বাবুয়ে: সিকান্দার রাজা, রেজিস চাকাভা, ক্রেইগ আরভিন, কেভিন কাসুজা, টিমিসেন মারুমা, প্রিন্স মাসভাউরে, আইন্সলে এনডিলোভু, ভিক্টর নাউচি, ব্রেন্ডন টেইলর, ডোনাল্ড টিরিপানো, চার্ল্টন টিশুমা।

মুশফিকের সঙ্গে ফিরলেন নাঈম

আগের টেস্টে খেলা মাহমুদউল্লাহ ও রুবেল হোসেন নেই স্কোয়াডেই। তাদের জায়গায় ফিরেছেন মুশফিকুর রহিম ও নাঈম হাসান।

নিরাপত্তা শঙ্কায় পাকিস্তান যাননি মুশফিক। তার ফেরাটা নিশ্চিতই ছিল। চোট কাটিয়ে ফেরা মেহেদী হাসান মিরাজের জায়গা হয়নি একাদশে। বিসিএলে দারুণ বোলিং করা তরুণ অফ স্পিনার নাঈম এসেছেন দলে। 

বাংলাদেশ: তামিম ইকবাল, সাইফ হাসান, মুমিনুল হক, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, লিটন কুমার দাস, মোহাম্মদ মিঠুন, তাইজুল ইসলাম, নাঈম হাসান, আবু জায়েদ চৌধুরী, ইবাদত হোসেন।

এফসি/এমএইচবি