• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই, ২০২০, ২৫ আষাঢ় ১৪২৭
প্রকাশিত: জুন ৩, ২০২০, ০৫:৪৯ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ৩, ২০২০, ০৫:৫৯ এএম

২০১৫ বিশ্বকাপ আসরে ইংল্যান্ড বধ

ক্রিকেট বিশ্বকাপের ‍‍`সেরা মুহূর্ত‍‍` বাংলাদেশের নামে

বিশেষ প্রতিনিধি
ক্রিকেট বিশ্বকাপের ‍‍`সেরা মুহূর্ত‍‍` বাংলাদেশের নামে
ঐতিহাসিক সেই জয়ের পর টাইগারদের বিজয় হুঙ্কার- ফাইল ফটো

ক্রিকেট বিশ্বকাপের ইতিহাসে এক অনন্য উচ্চতায় লেখা হলো বাংলাদেশের নাম। এখন পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হওয়া ওয়ানডে বিশ্বকাপগুলোর মধ্যে 'সেরা মুহূর্ত'টি নিজেদের নামে করে নিলো টাইগাররা।

আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না এলেও আইসিসি ক্রিকেট ওয়ার্ল্ড কাপ ২০১৯ হোম পেজে প্রকাশিত ভোটিং পোলের ফলাফল অনুসারি এ তথ্যটি নিশ্চিত করা হয়েছে।

সত্যি বলতে, এ যাবত অনুষ্ঠিত  ক্রিকেট বিশ্বকাপগুলোতে ঘটে যাওয়া রোমাঞ্চকর সব ঐতিহাসিক মুহূর্তের মাঝ থেকে এমনটি বেছে নেওয়াটা বেশ কঠিন ব্যাপার ছিল।বিশেষ এই মুহূর্তটি বাছাই করে নিতে তাই ভোটের ব্যবস্থা করে আইসিসি। যেখানে মনোনীত বেশ কয়েকটি মুহূর্তের মাঝ থেকে বিশেষ এই মুহূর্তটি নির্বাচন করা হয়। সেই ভোটযুদ্ধের ফাইনালে শেষ পর্যন্ত ভারতের ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের মুহূর্তকে হারিয়ে আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপে এ যাবতকালের সেরা মুহূর্ত হিসেবে নির্বাচিত হয়, ২০১৫ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ইংল্যান্ড বধের মুহূর্তটি।

এই ভোটিং পোলটি মূলত ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে অনুষ্ঠিত ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের পেজ থেকে করা হয়েছে। আর এই লড়াইয়ের ফাইনালে ৫১ শতাংশ ভোট পেয়ে শ্রেষ্ঠত্বের  মুকুট জিতে নেয় বাংলাদেশ। যেখানে ভারতের সেই মুহূর্তটি পেয়েছে ৪৯ শতাংশ ভোট।

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত ২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ গ্রুপ পর্বে শক্তিশালী ইংল্যান্ডকে হারিয়ে চমক দেখিয়েছিল। মাশরাফি বিন মর্তুজার নেতৃত্বে ম্যাচটিতে ১৫ রানের বিস্ময়কর জয় পায় টাইগাররা। আর এই জয়ের মুহূর্তটি-ই শেষ পর্যন্ত সেরা হল।

এর আগে বাংলাদেশের জয়ের এই মুহূর্তটি রাউন্ড অব ৬৪, ৩২ ও ১৬ তে বিশ্বকাপের রোমাঞ্চকর মুহূর্তগুলোর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয়লাভ করে কোয়ার্টার ফাইনালে নিজেদের আরেকটি মুহূর্তের মুখোমুখি হয়। যেটি ছিল ২০০৭ ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপে ভারত বধের গল্প। তবে নিজেদের গড়া সেই ঐতিহাসিক মুহূর্তটিকে পেছনে ফেলে শেষ পর্যন্ত ফাইনালে পৌঁছায় ২০১৫ সালের ইংল্যান্ড বধের মুহূর্তটিই।

পরবর্তীতে সেমিফাইনালে বাংলাদেশের সেই সুখস্মৃতিকে লড়তে হয় ১৯৮৩ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ ফাইনালে ভারতীয় অধিনায়ক কপিল দেবের একটি ক্যাচের মুহূর্তের সঙ্গে। উইন্ডিজ ব্যাটসম্যানের উড়িয়ে মারা বল দৌড়ের মাঝেই ধরেন কপিল। কিন্তু এই পর্বেও দুর্দান্ত জয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে বাংলাদেশের ইংলিশ বধের ঘটনাটি।

এরপর এই প্রতিযোগীতার ফাইনালে বাংলাদেশের এই মুহূর্তটি মুখোমুখি হয় ভারতের ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের মুহূর্তটির। শেষ পর্যন্ত ফাইনালের ভোটযুদ্ধ ৫১% - ৪৯% ব্যবধানে জিতে শ্রেষ্ঠত্বের মর্যাদা অর্জন করে বাংলাদেশের ২০১৫ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড বধের রোমাঞ্চকর মুহূর্তটি।

২০১৫ বিশ্বকাপের ঐতিহাসিক সেই ম্যাচটিতে মাহমুদুল্লাহ-মুশফীক জুটির দুর্দান্ত ব্যাটিং নৈপুন্যে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২৭৫ রানের পুঁজি গড়ে বাংলাদেশ। জবাবে জয়ের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে মাশরাফি-রুবেলদের বোলিং তোপের মুখে  ২৬০ রানে থেমে যায় ইংলিশদের ইংনিস। আর তাতে করে ১৫ রানের জয় নিয়ে বিশ্বকাপ আসরে প্রথমবারের মত নক আউট পর্বে খেলার গৌরব অর্জন করে টাইগাররা। ম্যাচটিতে ১০৩ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।

এসকে