• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ৮ মাঘ ১৪২৭
প্রকাশিত: নভেম্বর ২৫, ২০২০, ১০:৫৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ২৫, ২০২০, ১১:১১ পিএম

না ফেরার দেশে ডিয়েগো ম্যারাডোনা 

ক্রীড়া ডেস্ক
না ফেরার দেশে ডিয়েগো ম্যারাডোনা 

আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার এবং ১৯৮৬ বিশ্বকাপ জয়েরে মহানায়ক ডিয়েগো ম্যারাডোনা মারা গেছেন। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বুধবার (২৫ নভেম্বর) তিনি ৬০ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। 

আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যম ‘টিওয়াইসি স্পোর্টস’ জানিয়েছে, আজ স্থানীয় সময় বিকালে হার্ট অ্যাটাকের শিকার হন ম্যারাডোনা। এই অসুস্থতা থেকে আর বেঁচে ফিরতে পারেননি ফুটবল জাদুকর। এ ছাড়া সংবাদমাধ্যম ‘ক্লারিন’ও নিশ্চিত করেছে ম্যারাডোনার মৃত্যুর খবর।

মাত্র দুই সপ্তাহ আগেই মস্তিস্কে রক্তক্ষরণের কারণে ম্যারাডোনার অপারেশন হয়েছিল। সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়ে নিজের বাড়িতে ফিরেছিলেন ফুটবল ঈশ্বর। তার ভক্তরা যখন আবারো তাকে পাগলামি আর ফুর্তিতে মেতে ওঠার দৃশ্য দেখার অপেক্ষায় ছিলেন, তখন সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন বিশ্ব ফুটবলের আলোচিত এই চরিত্র। 

আর্জেন্টাইন ক্লাব বোকা জুনিয়র্স থেকে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন ম্যারাডোনা। এরপর ইতালিয়ান ক্লাব ন্যাপোলি ছিল তার সোনালি যুগের ক্লাব। খেলেছেন বার্সেলোনার জার্সিতেও। কিন্তু ১৯৮৬ বিশ্বকাপে একক নৈপুণ্যে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতানোর পর থেকেই ফুটবল বিশ্বে অবিসংবাধিত কিংবদন্তিতে পরিণত হন তিনি। ওই বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে যে দুটি গোল করেছিলেন, সে দুটিই ইতিহাসের পাতায় ঠাঁই করে নিয়েছে। প্রথমটি করেছিলেন হাত দিয়ে। যে কারণে এটাকে বলা হয় ‘দ্য হ্যান্ড অব গড’। অন্যটি করেছিলেন মাঝ মাঠ থেকে এককভাবে টেনে নিয়ে গিয়ে। সেই গোলটারই নাম হয়ে যায় ‘গোল অব দ্য সেঞ্চুরি’।

১৯৯০ বিশ্বকাপেও আর্জেন্টিনাকে ফাইনালে তুলেছিলেন তিনি। সেবার জার্মানির কাছে হেরে শিরোপা হাতছাড়া করতে হয় তাকে। এছাড়া ইউরোপিয়ান ফুটবল ইতালিয়ান ক্লাব নাপোলির অবিসংবাদিত কিংবদন্তি ছিলেন তিনি।