• ঢাকা
  • শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৬, ২০২১, ১০:১১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২৭, ২০২১, ১১:২০ এএম

বোলিং উইকেটের শিকার খোদ পাকিস্তানও 

বোলিং উইকেটের শিকার খোদ পাকিস্তানও 

করাচি টেস্টে মাঠে নেমেছে সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা ও পাকিস্তান। পেসার ও স্পিনারদের জন্য যেন স্বর্গরাজ্য এই ক্রিজ। সারা দিনে উইকেট পড়েছে ১৪টি! তাই প্রথমে ব্যাট করা প্রোটিয়াদের আউট করে স্বস্তিতে থাকা পাকিস্তান দিন শেষে ফিরেছে চার উইকেটের অস্বস্তি নিয়ে।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমেই বিপদে পড়ে কুইন্টন ডি ককের দল। এক প্রান্ত ডীন এলগার আকড়ে ধরে থাকলেও থামছিলেন না শাহীন শাহ, ইয়াসির শাহরা। ৪০তম ওভারের মধ্যে অর্ধশতক করে থিতু হওয়া ব্যাটসম্যান এলগার আউট হয়ে গেলে বিপদে পড়ে প্রোটিয়ারা। এরপর জর্জ লিন্ডের সঙ্গে জুটি গড়তে থাকেন টেম্বা বাভুমা এবং কাগিসো রাবাদা। ছোট ছোট জুটিতে ২২০ রানে মাত্র দুই সেশনেই সবকটি উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ইয়াসির শাহ তিনটি এবং নুমান আলী ও শাহীন দুটি করে উইকেট নেন। 

দিনের বাকি ছিল মাত্র ১৬ ওভার। ব্যাট করতে নেমেই যেন হুড়মুড়িয়ে উইকেট পড়তে থাকলো পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানদের। রাবাদা এবং কেশব মহারাজদের বোলিং তোপে দুই অঙ্কের রানে পৌঁছাতে পারেননি কোনো ব্যাটসম্যানই। পাকিস্তানিদের হয়ে দিনের সর্বোচ্চ একক রান করেছেন ইমরান বাট, সেটিও নয় (৯) রান। রাবাদা নিয়েছেন দুটি উইকেট, অ্যানরিচ নর্তিয়ে এবং কেশব নিয়েছেন একটি করে উইকেট। 

আগামীকাল ব্যাট করতে নামবেন অপরাজিত ব্যাটসম্যান আজহার আলী এবং ফাওয়াদ আলম। তবে এমন চলতে থাকলে তিন দিনেই টেস্টের ফলাফল আসার সম্ভাবনা রয়েছে।