• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১, ৩ বৈশাখ ১৪২৮
প্রকাশিত: এপ্রিল ৮, ২০২১, ০৯:৪১ এএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ৮, ২০২১, ১০:৪৫ এএম

এমবাপ্পের কারিশমায় স্বস্তিতে পিএসজি 

এমবাপ্পের কারিশমায় স্বস্তিতে পিএসজি 

গতকাল চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলার ৬০ মিনিটের মাথায় যখন ২-২ গোলে সমতায় বায়ার্ন মিউনিখ এবং পিএসজি, তখনও প্রতিশোধের অনেকটা বাকি। সেটিও নেওয়া হয়ে গেল আট মিনিট পরেই, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার পাস থেকে ডিফেন্ডারদের বোকা বানিয়ে দুর্দান্ত এক গোল করলেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। লেভানডোস্কি থাকুক বা না থাকুক, গত চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালের হারের শোধ ৩-২ গোল ব্যবধানে জয়ে কিছুটা নিতে পেরেছে নেইমার জুনিয়ররা। 

ঘরের মাঠে বায়ার্নের এমন হারের পেছনে অবশ্য ইনজুরিকে দায় দেয়া ছাড়া বাকি সবটাই পিএসজির তারকাদের নৈপুণ্যের অবদান। শেষ ১৬ এর ম্যাচে বার্সেলোনার বিপক্ষে জয়ের মূল নায়ক এমবাপ্পে গতকাল করলেন জোড়া গোল। আর তিন গোলের দুটিতেই অ্যাসিস্ট করেছেন নেইমার। প্রথম গোলের দেখা তৃতীয় মিনিটেই পেয়েছিল সফরকারী পিএসজি। নেইমারের বাড়ানো বলকে ডি বক্সের খেলোয়াড়দের চোখের সামনে দিয়ে গোলে পরিণত করেন এমবাপ্পে। থামাতে ব্যর্থ হন গোলরক্ষক ইমানুয়েল নয়্যারও। ২৮ মিনিটের সময় অবশ্য সেই নেইমারের পাস থেকেই মার্কুইনহো গোল আদায় করে নেন। 

দ্বিতীয়ার্ধের আগেই চমৎকারভাবে ফিরে এসেছিল বায়ার্নও। ৩৭তম মিনিটে এরিক ম্যাক্সিম চুপো মোটিংয়ের হেড আটকাতে পারেননি কেইলর নাভাস। পাভার্ডদের আক্রমণ বেশ শক্ত হাতেই সামলেছেন অবশ্য, নয়তো বায়ার্ন আরও বেশ কিছু গোল পেত। দ্বিতীয় গোলও জার্মান তারকা মুলারের হেড থেকে আসে। ৬০তম মিনিটে জোশুয়া কিমিচের সেই ফ্রি-কিককে হেড করলে তা গোলরক্ষক নাভাসের সামনে পড়ে লাফিয়ে জালে জড়ায়। অবশ্য খেলার সিদ্ধান্ত হয় তৃতীয় গোলে, যা এমবাপ্পে ৬৮তম মিনিটে আদায় করে নেন। 

অ্যালিয়াঞ্জ অ্যারেনায় এই জয়ের ফলে বেশ স্বস্তিতে থাকবে পিএসজি। কারণ, দ্বিতীয় লেগে ঘরের মাঠে ড্র করলে, এমনকি ১ গোল ব্যবধানে হারলেও কোয়ার্টারে খেলবে তারা। কিন্তু জার্মানিকে কমপক্ষে ২ গোল ব্যবধানে জিততে হবে নিজেদের অবস্থান ধরে রাখার জন্য। এখন সেটি কতটা সফলভাবে করতে পারে লেভানডোস্কিরা, সেটিই দেখার বিষয়।