• ঢাকা
  • বুধবার, ২৩ জুন, ২০২১, ৯ আষাঢ় ১৪২৮
প্রকাশিত: মে ১১, ২০২১, ০২:৪৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ১১, ২০২১, ০২:৫৮ পিএম

১১২ বছরের রেকর্ড এখন পাকিস্তানের

১১২ বছরের রেকর্ড এখন পাকিস্তানের

দুজন বোলার পাঁচ উইকেট করে নিয়ে প্রতিপক্ষের ব্যাটিং ইনিংস ধসিয়ে দিচ্ছে, টেস্টে এমন দৃশ্য বিরল হলেও একেবারে আনকোরা নয়। কিন্তু কাকতালীয়ভাবে সেই দুজন বোলারই যদি বাঁহাতি হয়, সে ক্ষেত্রে একটু নড়েচড়ে বসতেই হয়। পাকিস্তানের বাঁহাতি স্পিনার নুমান আলী এবং বাঁহাতি পেসার শাহিন শাহ আফ্রিদি এমন রেকর্ডই গড়েছেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে, নিজেদের করে নিয়েছেন ১১২ বছরের রেকর্ড। 

টেস্ট ক্রিকেটের বয়স ১৪৪ বছর। এর মধ্যে  দুই বাঁহাতি মিলে এক ইনিংসে ১০ উইকেট সমানভাবে ভাগ করে নেওয়ার ঘটনা মাত্র দুটি। ৫২ রানে পাঁচ উইকেট নিয়ে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং করা আফ্রিদি এবং ৮৬ রানে নুমানের পাঁচ উইকেটের আগে ১৯০৯ সালে দুই ইংলিশ বাঁহাতি এই রেকর্ড গড়েন।

অ্যাশেজে সেবার এজবাস্টনে প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে পেসার জর্জ হার্স্ট ও স্পিনার কলিন ব্লাইথ পাঁচ উইকেট করে ভাগ করে ধসিয়েছিলেন অস্ট্রেলীয়দের ইনিংস। সেই ম্যাচের প্রথম ইনিংসেও এই বাঁহাতি দুজনেই নিয়েছিলেন ১০ উইকেট, সে ক্ষেত্রে অবশ্য ব্লাইথের ঝুলিতে ছিল ৬ উইকেট। 

অবশ্য আরেকটি রেকর্ডও গড়েছে দলটি। একই ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ১৩২ রানে গুটিয়ে যাওয়া দলটির বিপক্ষে পাঁচ উইকেট পেয়েছিলেন পেসার হাসান আলীও। ফলে একই ম্যাচে তিনজন বোলারের পাঁচ উইকেটের বিরল রেকর্ড গড়েছে পাকিস্তান। একই সঙ্গে অধিনায়ক হিসেবে প্রথম চার টেস্টে টানা জয় পেয়ে বাবর আজম ভাসছেন প্রশংসায়। সব মিলিয়ে হারারে স্পোর্টিং ক্লাবে বেশ ভালো সময় পার করেছেন পাকিস্তানি তারকারা।