• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮
প্রকাশিত: জুন ১০, ২০২১, ০৩:২২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ১০, ২০২১, ০৩:২৫ পিএম

বর্ণবাদী অঙ্গভঙ্গি করে নিষিদ্ধ ভলিবল তারকা 

বর্ণবাদী অঙ্গভঙ্গি করে নিষিদ্ধ ভলিবল তারকা 

গত সপ্তাহে থাইল্যান্ডের বিপক্ষে আন্তর্জাতিক ভলিবল ম্যাচে নেমেছিলেন সার্বিয়ান তারকা সানজা জুরজেভিচ। প্রতিপক্ষের মতো রক্ষণ সাজাতে আঙুল দিয়ে চোখ ছোট করার ইশারা করেছিলেন তিনি, যা ভাইরাল হওয়ার পর সমালোচিত হয়। এমন আচরণকে বর্ণবাদ হিসেবে চিহ্নিত করায় এবার শাস্তির মুখোমুখি হচ্ছেন এই প্রমীলা তারকা। 

শাস্তিও কম কিছু নয়। আন্তর্জাতিক ভলিবল ফেডারেশন তাকে ২০ হাজার সুইস ফ্রাঙ্ক জরিমানা করেছে, যা প্রায় ১৬ হাজার ইউরোর সমান। উক্ত অর্থ খেলায় বৈষম্যমূলক আচরণ কিংবা শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক উন্নয়নের জন্য ব্যয় করবে ভলিবল কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও আগামী দুই ম্যাচ নিষেধাজ্ঞা অর্থাৎ বেলজিয়াম এবং কানাডার বিপক্ষের ম্যাচে খেলতে পারবেন না তিনি। 

সানজা অবশ্য পুরো ব্যাপারটিকে ভুল বোঝাবুঝি বলছেন। এমনকি নিজের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট প্রাইভেট করার আগ পর্যন্ত বেশ কয়েকটি পোস্টে ধারাবাহিকভাবে ক্ষমাও চেয়েছেন। সার্বিয়ার ভলিবল ফেডারেশন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তাদের পেইজে একটি বার্তায় দুঃখ প্রকাশ করেছে। সেখানে লেখা হয়েছে, “আমরা থাইল্যান্ড দল, জনগণের কাছে আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী। এটা নিয়ে দয়া করে বাড়াবাড়ি করবেন না। সানজা তৎক্ষণাৎ তার  ভুল বুঝতে পেরেছিলো এবং থাইল্যান্ড দলের কাছে ক্ষমা চেয়েছে। সে শুধু তার নিজের দলের খেলোয়াড়দের থাইল্যান্ডের মতো রক্ষণ সাজাতে বলতে গিয়ে এমন অঙ্গভঙ্গি করেছে, এবং কোনো কটাক্ষের উদ্দেশ্য ছিলো না। এটা অবশ্যই অনাকাঙ্ক্ষিত।” 

করোনা মহামারীর পর থেকেই বর্ণবাদী আচরণ বেড়েছে বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে। এশীয় মার্কিনী এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় বাসিন্দাদের কাছ থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের স্টপ এএপিআই দুই হাজার ৮০০ অভিযোগ পেয়েছে। এমন অবস্থায় সানজার আচরণের উদ্দেশ্য যেমনই হোক, তাকে বর্ণবাদের শাস্তি পেতে হচ্ছেই।